2:17 pm |আজ বৃহস্পতিবার, ১২ই জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | ২৬শে মে ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৪শে শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরি

সংবাদ শিরোনাম:
সংসদ ভেঙে দিয়ে নির্বাচন দিতে সরকারকে ৬ দিনের সময় দিলেন ইমরান খান না ফেরার দেশে চলে গেলেন সত্যাশ্রয়ী মুক্তবুদ্ধি চর্চার অগ্রপথিক সেলিম বাগেরহাটে ট্রলির ধাক্কায় ২ জন নিহত লক্ষ্মীপুরে চাঁদাবাজির মামলা করায় প্রবাসীর বাড়ির  প্রাচীর ও ঘর ভাঙচুর, হুমকির অভিযোগ ক্রেতার অভাবে বিপুল পরিমাণ তেল নিয়ে সাগরে ভাসছে রাশিয়ার জাহাজ ফটিকছড়িতে ৭৮টি চোরাই মোবাইল ও কার সহ দুই যুবক গ্রেপ্তার  কুড়িগ্রামের রৌমারীতে মা ও শিশুকে হত্যার ঘটনায় ২ আসামীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব সাভারে জন্মদিনের কথা বলে বন্ধুদের নিয়ে প্রেমিকাকে গণধর্ষণ ঘিওরে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ মামলায় এক যুবককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড সমুদ্রে ট্রলার ডুবি, ১০ ঘণ্টা পর ১৫ জেলে জীবিত উদ্ধার




মেহেরপুর পাসপোর্ট অফিসে অতিরিক্ত টাকা না দিলে ভোগান্তি

মেহেরপুর পাসপোর্ট অফিসে অতিরিক্ত টাকা না দিলে ভোগান্তি




প্রতিনিধি মেহেরপুর 

মেহেরপুরের আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে অতিরিক্ত টাকা না দিলেই বিভিন্ন আবেদন ফরমে নানা ভুল আছে এমন অভিযোগ তুলে বার বার ঘোরান হয় পাসপোর্ট প্রত্যাশিতদের। তবে পাসপোর্ট অফিসের দালাল বা অফিসের কোনো কর্মকর্তা-কর্মচারীকে অতিরিক্ত টাকা দিলেই নিমেষেই সব ভুল সঠিক হয়ে যায়। ফলে টাকা দিলেই দ্রুত পাসপোর্ট পাওয়া যায়, না দিলে দিনের পর দিন ঘুরতে হয় গ্রাহকদের। এর প্রতিবাদ বা প্রতিকার চাইলে আরো বিপদ নেমে আসে। অফিসে দায়িত্ব্রত আনসার ও কর্মচারীরা প্রতিবাদকারির উপর চালান নির্যাতন। ঘন্টার পর ঘন্টা লাইনে দাড়িয়ে থেকে ফাইল জমা দেওয়া না গেলেও দালল বা আফিসের কর্মকর্তাদের সাথে লেনদন করলেই নিমিশেই ফরমের সব ভুল ঠিক হয়ে যায়।বিদেশে কর্মসংস্থান   এবং চিকিৎসার জন্য নতুন পাসপোর্ট করতে পাসপোর্ট অফিসে ছুটে আসতে হয় মানুষকে। দ্রুত পাসপোর্ট পেতে জরুরী পাসপোর্ট ফি প্রদান বা আবেদন নিবেদন করে কোন কাজ না হওয়ায় বাধ্য হয়ে অতিরিক্ত টাকা গুনে দিতে হচ্ছে গ্রাহকদের। যেন এ ঘটনা দেখেও দেখার কেউ নেই। এভাবে পাসপোর্ট অফিসের অসাধু কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কারণে অতিষ্ঠ মেহেরপুরবাসী।পাসপোর্ট প্রত্যাশী কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, তারা বাধ্য হয়ে অতিরিক্ত টাকা দিচ্ছেন। টাকা দিয়েও স্বীকার করার কোনো পথ নেই। কারণ স্বীকার করলে তার পাসপোর্ট নানা অজুহাতে আটকে দিতে পারে কর্তৃপক্ষ। গাংনী উপজেলার আরিফুল ইসলাম বলেন, উন্নত চিকিৎসার জন্য তিনি ভারতে যাবেন। গত দুই মাস ধরে পাসপোর্ট পেতে আঞ্চলিক অফিসে ঘুরে ঘুরে ক্লান্ত হয়ে পড়েছেন। দ্রুত পাসপোর্ট পেতে অতিরিক্ত টাকা চেয়েছিলেন পাসপোর্ট অফিসের লোকজন। না দেওয়ায় তাকে ঘুরতে হচ্ছে। সহসা পাবেন কি-না তাও জানেন না।আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের উপ-পরিচালক শাহিনুর রহমানের কক্ষে প্রবেশ করে তৌহিদ আহম্মেদ টিটু নামে এক দালালকে ৪ টি পাসপোট নিয়ে বসে থাকতে দেখাযায়। তৌহিদ আহম্মেদ টিটু নিজেকে ছাত্র লীগের সাবেক নেতা বলে গর্বের সাথে নিজের পরিচয় দেন।তিনি বলেন আমাদের চলতে হবে কাজ করতে হবে এভাবে ডিস্ট্রাব করলে সমস্যা আছে।মেহেরপুর আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের উপ-পরিচালক শাহিনুর রহমান বলেন পাসপোর্ট অফিসের গেট খুলা থাকে তাই কে দালাল আর কে সেবা গ্রহীতা তা আমাদর চেনা সম্ভাব নয়। তবে এখানে কেউ হয়রানি হননা। কিছু ভিআইপি ব্যক্তি আছে তারা আমার কাছে আসলে তাদের সেবা দেওয়া লাগে। এ সময় তৌহিদ আহম্মেদ টিটুর বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন ইনি একজন বিশিষ্ট্য রাজনৈতিক ব্যক্তি এধরনের ব্যক্তিরা আমার কাছে সেবার জন্য আসবে এটাই স্বাভাবিক।

আলোকিত প্রতিদিন/ ২৪ জানুয়ারি২০২২/মওম

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন











All rights reserved. © Alokitoprotidin
এস কে. কেমিক্যালস এগ্রো লি: এর একটি মিডিয়া প্রতিষ্ঠান