4:05 am |আজ মঙ্গলবার, ১৯শে শ্রাবণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ৩রা আগস্ট ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২৩শে জিলহজ ১৪৪২ হিজরি

সংবাদ শিরোনাম:
টাঙ্গাইলে প্রতিবন্ধীকে ঘর উপহার দিলেন মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান

টাঙ্গাইলে প্রতিবন্ধীকে ঘর উপহার দিলেন মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান

প্রতিনিধি,টাঙ্গাইল:
টাঙ্গাইলে আশ্রয়ন প্রকল্প-২ এর আওতায় প্রধানমন্ত্রীর ঘর পেয়েছেন অন্তত এক হাজারের বেশি পরিবার। সরকারি ব্যবস্থাপনা ছাড়াও টাঙ্গাইলে ব্যক্তি উদ্যোগে ঘর নির্মাণ করে দিয়েছেন সদর উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শামীমা আক্তার। শামীমার এমন উদ্যোগ প্রশংসায় ভাসছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। বিত্তবানদের এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন সচেতন মহল। জানা গেছে, সদর উপজেলার দ্যাইন্যা ইউনিয়নের চর ফতেপুর খোশালিয়া গ্রামের ৬৫ বছরের দৃষ্টি প্রতিবন্ধী এলাহী মোল্লাকে নিজস্ব অর্থায়নে ঘর উপহার দেন সদর উপজেলার মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শামীমা আক্তার। এ বিষয়ে তিনি ফেসবুকে একটি স্টেটাস দেন। যাহ হুবহুব তুলে ধরা হল ‘আমার নির্বাচনী এলাকা তোরাবগঞ্জ ব্রীজের পাশে এই ভদ্রলোক প্রতিদিন বসে থাকেন। উনার সাথে আমার প্রথম পরিচয় হয় করোনার প্রথম ওয়েবে এর সময় যখন সারাদেশে নজিরবিহীন লকডাউন চলছে মানুষজন সবাই ভীতসন্ত্রস্থ হয়ে ঘরের মাধ্যে বসে আছে। তখন আমি আমার সাধ্যমত ব্যক্তিগত অর্থায়নে ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে সদরের বিভিন্ন ইউনিয়নে ছুটে যাচ্ছি ঠিক ওই সময়টাতে প্রায়ই দেখতাম এই ভদ্রলোক ব্রীজের এক পাশে নির্লিপ্তভাবে বসে থাকতেন। উনার এই একা একা বসে থাকা আমাকে অনেক কষ্ট দিতো তাই একদিন ওনার কাছে যাই কথা বলি আর আমার কাছে থাকা খাদ্যসামগ্রী একটা প্যাকেট দেই। এরপর থেকেই মনে হত এই ভদ্রলোকের জন্য যদি কিছু করতে পারতাম তাহলে অনেক শান্তি পেতাম। হঠাৎ একদিন মনে হলো মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ড্রিম প্রজেক্ট আশ্রয়ন প্রকল্পের অংশ হিসেবে যদি এই ভদ্রলোককে নিজ অর্থায়নে একটি বাড়ি করে দেই তাহলে হয়তোবা এই মহান প্রকল্পের সাথে এক বিন্দু হলেও আমি নিজেকে সম্পৃক্ত করতে পারব। এতেই আমার জীবনের সার্থকতা আসবে । গত২০ জুন উনার ঘরসহ ১১৩০টি ঘর মাননী প্রধানমন্ত্রী উদ্বোধন করেন । উনি ওনার পরিবারসহ নতুন বাড়িতে উঠে গেছেন আল্লাহর কাছে আমি দোয়া করি উনি যাতে উনার পরিবার নিয়ে ভালো থাকেন সুস্থ থাকেন। এমন মহতী কাজের ভুসয়ী প্রসংশা করেছেন এলাকার সুধীজন। তারা বলেন, সদর উপজেলা মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান শামীমা আক্তার একজন দানশীল মানুষ। করোনার সময় তিনি নিজ অর্থায়নে চর এলাকার অসহায় মানুষের পাশে তিনি থেকেছেন এবং আছেন। কিন্তু নিজ অর্থায়নে বৃদ্ধ এক প্রতিবন্ধীকে নিজের টাকায় ঘর উপহার দিয়ে এলাকায় সাধারণ মানুষের মনের ভিতর জায়গা করে নিয়েছে। আমরা তার সর্বাঙ্গীণ মঙ্গল কামনা করছি। ঘর পেয়ে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী এলাহি বলেন, করোনার সময় ভিক্ষার টাকা খুব একটা পাইনা খুব কষ্টে দিনাপাত করে আসছিলাম হঠাৎ একদিন কোথা থেকে ফেরেস্তার মত একজন মহিলা আসলো আমাকে এক বস্তা খাদ্য সামগ্রী দিলেন এবং বললো বাবা দেখি আপনার জন্য কিছু করতে পারিকিনা। তিনি আমাকে একটি ঘর উপহার দিয়েছে। শেষ বয়সে ঘর পেয়ে আমি খুশি হয়েছি। আল্লাহ আমাদের মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান শামীমা আক্তারকে হাজার বছরের আয়ু দান করেন। এ ব্যাপারে দ্যাইন্যা ইউনিয়নের মো. লাভলু মিয়া লাবু বলেন, সদর উপজেলার মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শামীমা আক্তার তার নিজস্ব অর্থায়নে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী এলাহীকে ঘর উপহার দেওয়ার বিষয়টি আমি জানি। এমন উদ্যোগে আমার ইউনিয়নবাসীর সাথে আমি নিজেও খুব খুশি হয়েছি।

আলোকিত প্রতিদিন/ ২২ জুন, ২০২১/দ ম দ

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

All rights reserved. © Alokitoprotidin
এস কে. কেমিক্যালস এগ্রো লি: এর একটি মিডিয়া প্রতিষ্ঠান