আজ বুধবার, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ ।   ২২ মে ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

জি-২০ সম্মেলনে জিনপিংয়ের না আসায় হতাশ বাইডেন

-Advertisement-

আরো খবর

- Advertisement -
- Advertisement -

আলোকিত ডেস্ক :

বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ আন্তর্জাতিক গোষ্ঠী গ্রুপ অব টোয়েন্টি বা জি-২০ শীর্ষ সম্মেলনে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের না আসার খবরে হতাশা প্রকাশ করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। আগামী ৯ এবং ১০ সেপ্টেম্বর ভারতের রাজধানী দিল্লিতে জি-২০ সদস্য দেশগুলোর এই শীর্ষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। সম্মেলনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন থেকে শুরু করে সদস্য, পর্যবেক্ষক ও আমন্ত্রিত দেশের শীর্ষনেতারা উপস্থিত হবেন। সোমবার (৪ সেপ্টেম্বর) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের ভারতে জি-২০ নেতাদের শীর্ষ সম্মেলনে যোগ না দেওয়ার খবরে রোববার হতাশা প্রকাশ করেছেন জো বাইডেন। যদিও এই মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেছেন, ‘তাকে (শি জিনপিং) দেখার জন্যই (ভারতে) যাচ্ছেন’ তিনি। বেশ কয়েকটি সূত্রের বরাত দিয়ে রয়টার্স গত বৃহস্পতিবার জানায়, ভারতে অনুষ্ঠিতব্য জি-২০ সম্মেলন সম্ভবত এড়িয়ে যেতে পারেন চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। অবশ্য জিনপিং না আসলেও সম্মেলনে চীনের পক্ষে দেশটির প্রধানমন্ত্রী লি কিয়াং প্রতিনিধিত্ব করবেন।

আর এরপরই রোববার ডেলাওয়্যারের রেহোবোথ বিচে সাংবাদিকদের সাথে কথা বলার সময় বাইডেন বলেন, ‘আমি হতাশ তবে আমি তাকে দেখতেই সেখানে যাচ্ছি’। বাইডেন অবশ্য এর বেশি বিস্তারিত আর কিছু বলেননি। রয়টার্স বলছে, জি-২০ সম্মেলনে যোগ দেওয়ার জন্য আগামী ৭-১০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ভারত সফর করবেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। এরপর ভিয়েতনাম সফর করবেন তিনি। মূলত এশিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্ক জোরদার করতে চায় বাইডেন প্রশাসন এবং এই কারণে আসন্ন এই সফর বেশ গুরুত্বপূর্ণ। ভারত ও ভিয়েতনামে সফরের জন্য তিনি উন্মুখ কিনা জানতে চাইলে বাইডেন বলেন, ‘হ্যাঁ, আমি উন্মুখ।’ যুক্তরাষ্ট্রের ডেমোক্র্যাটিক এই প্রেসিডেন্ট বলেন, আমি একটু বেশি চাই সমন্বয়। আমি মনে করি তারা উভয়েই (ভারত ও ভিয়েতনাম) যুক্তরাষ্ট্রের সাথে অনেক ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক চায় এবং এই সফর সেই কাজে খুবই সহায়ক হতে পারে।রয়টার্স বলছে, জি-২০ নেতাদের শীর্ষ সম্মেলনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের যোগ দেওয়ার কথা আগেই জানা ছিল। আর এই কারণে ভারতে এই শীর্ষ সম্মেলনটিকে এমন একটি স্থান হিসাবে দেখা হয়েছিল যেখানে মার্কিন প্রেসিডেন্টের সঙ্গে শি জিনপিং দেখা করতে পারেন বলে মনে করা হয়েছিল।

কারণ বৈশ্বিক এই দুই পরাশক্তির মধ্যে বাণিজ্য এবং ভূ-রাজনৈতিক উত্তেজনাসহ নানা কারণে অস্থিতিশীলতা থাকলেও উভয় দেশ সেই সম্পর্ক স্থিতিশীল করতে চায়। এছাড়া গত বছরের নভেম্বরে ইন্দোনেশিয়ার বালিতে জি-২০ শীর্ষ সম্মেলনের ফাঁকে বাইডেনের সঙ্গে দেখা করেছিলেন শি জিনপিং। মূলত সেটিই ছিল বাইডেন ও জিনপিংয়ের সর্বশেষ সাক্ষাৎ। অন্যদিকে জি-২০ ইভেন্টে যোগ দেওয়ার জন্য রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ভারতে যাবেন না বলে ইতোমধ্যেই জানিয়ে দিয়েছেন। এর পরিবর্তে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভকে ভারতে পাঠাবেন বলেও জানিয়েছেন তিনি।

- Advertisement -

০৪-০৯-২০২৩ইং

- Advertisement -
- Advertisement -