3:48 am |আজ মঙ্গলবার, ১৯শে শ্রাবণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ৩রা আগস্ট ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২৩শে জিলহজ ১৪৪২ হিজরি

সংবাদ শিরোনাম:
ত্রিশালে রকিব ওয়েল ফেয়ার ফাউন্ডেশনের ঘর পেয়ে খুশি দরিদ্র আলমগীর

ত্রিশালে রকিব ওয়েল ফেয়ার ফাউন্ডেশনের ঘর পেয়ে খুশি দরিদ্র আলমগীর

প্রতিনিধি, ত্রিশাল (ময়মনসিংহ):
সম্বলহীন আলমগীর হোসেকে থাকার ঘর উপহার দিলেন রকিব ওয়েল ফেয়ার ফাউন্ডেশান । নতুন ঘরের চাবি হস্তান্তর করলো ফাউন্ডেশনের কর্মকর্তারা সম্বলহীন আলমগীর হোসেন পিঠা বিক্রি ও শ্রমিকের কাজ করে কোন রকম ভাবে পরিবার চালালেও থাকার ছিল না ঘর একটি ছোট টিনশেট ঘরে পরিবারের সদস্য নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করে আসছিলো। অবশেষে স্বরনাপন্ন হলেন ত্রিশালের সেচ্ছাসেবী সামাজিক সংগঠন রকিব ওয়েল ফেয়ার ফাউন্ডশোন । সোমবার সকালে সম্বলহীন আলমগীর হোসেনকে ঘরের চাবি হস্তান্তর করেন ত্রিশাল ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও রকিব ওয়েল ফেয়ার ফাউন্ডেশনের মরহুম রকিবের পিতা আব্দুর রউফ, সমাজ সেবক আতাউর রহমান শামীম, বাসাস কেন্দ্রিয় কমিটির সমাজ কল্যাণ সম্পাদক খোরশিদুল আলম মজিব, ত্রিশাল উপজলো দূনীতি প্রতিরোধ কমিটির সহ-সভাপতি মনিরুল হক খান, রকিব ওয়েল ফেয়ার ফাউন্ডেশনের প্রধান সমন্বয়ক মিনহাজ উদ্দিন, ত্রিশাল হাসপাতালের ডা. মনোয়ার হোসনে, আমাদের সময় পত্রিকার প্রতিনিধি জোবায়ের হোসেন, রকিব ওয়েল ফেয়ার ফাউন্ডেশনের সদস্য তপন সাহা, শরীফ, রোকন, তারেক, মিল্টন, উজ্জল, মানিক আচার্য্য, গৌতম দে, মোশারফ হোসেন, সানোয়ার, সুজন, জসিম উদ্দিন, রঞ্জন সরকার, সিফাত আকন্দ প্রমূখ। আলমগীর হোসনে জানান, অনেক দিন যাবত ঘরের জন্য অনেক কষ্ট করে রাত যাপন করে আসছিলাম, আজ থেকে আমাদের এ কষ্টটা শেষ হলো। আমি পিঠা বিক্রি করেছি আমার পক্ষে ঘর দেয়া সম্ভব ছিলনা। সে রকিব ওয়েল ফেয়ার ফাউন্ডেশনের সকলের জন্য দোয়া করেন। রকিব ওয়েল ফেয়ার ফাউন্ডেশনের প্রধান সমন্বয়ক মিনহাজ জানান, আমাদের ফাউন্ডেশনের অসহায় দরিদ্রদের জন্য গৃহ নির্মাণ প্রকল্পের এটি ৭ নম্বর প্রকল্প। প্রকল্পটি বাস্তবায়নে প্রত্যেক সদস্যই অনেক অবদান রেখেছেন। আগামীতে আমরা সমাজিক কর্মকান্ডে আরো এগিয়ে যেতে সকলের সহযোগিতা কামনা করছি। আমাদের ১০০ ঘর নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে ।

আলোকিত প্রতিদিন/ ১৪ জুন, ২০২১/দ ম দ

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

All rights reserved. © Alokitoprotidin
এস কে. কেমিক্যালস এগ্রো লি: এর একটি মিডিয়া প্রতিষ্ঠান