2:44 pm |আজ রবিবার, ১৭ই শ্রাবণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১লা আগস্ট ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২১শে জিলহজ ১৪৪২ হিজরি

চকরিয়ায় নেশার দ্রব্য খাওয়ায়ে কিশোরীকে ধর্ষণ!

চকরিয়ায় নেশার দ্রব্য খাওয়ায়ে কিশোরীকে ধর্ষণ!

প্রতিনিধি, চকরিয়া:
কক্সবাজারের চকরিয়ায় বার বছরের এক কিশোরীকে বিয়ের দাওয়াত দিয়ে ঘরে নিয়ে জোরপূর্বক ভাবে পানির সাথে নেশা জাতীয় দ্রব্য মিশিয়ে খাওয়ানোর পর ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ভিকটিমের মা বাদী হয়ে ধর্ষণের অভিযোগে দুইজনকে আসামী করে সোমবার (৭জুন) থানায় মামলা দায়ের করেছে। গত ২ জুন বিকাল ৫টার দিকে উপজেলার খুটাখালী ইউনিয়নের ৪নম্বর ওয়ার্ডস্থ গর্জনতলী এলাকার রোকশানা আক্তারের বসতঘরে এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ঘটনার দিন বিকেলে খুটাখালী ইউনিয়নের ৪নম্বর ওয়ার্ডস্থ গর্জনতলী এলাকার ফখরুল ইসলামের মেয়ে রোকশানা আক্তার তার বাড়িতে বার বছরের এক কিশোরীকে কৌশলে বিয়ের দাওয়াত দিয়ে নিজ ঘরে নিয়ে যায়। পরে তাকে ভাত খাওয়ার সময় জোরপূর্বক ভাবে পানি খাওয়াতে বাধ্য করলে ওই কিশোরী অনীহা প্রকাশ করে। তারপরও তাকে জোরপূর্বক পানি খাওয়াতে বাধ্য করে একগ্লাস পানির সাথে নেশা জাতীয় দ্রব্য মিশিয়ে খাওয়ানোর পরে অজ্ঞান হয়ে পড়ে। উক্ত ঘরে পূর্ব হতে অবস্থান করা একই এলাকার নূরুল ইসলামের ছেলে মো: ইউনুছ কিশোরীকে ধর্ষণ করে। অনেক চেষ্টার পর জ্ঞান ফেরাতে না পেরে ধর্ষণের পরদিন ৩ জুন আসামীগণ কিশোরকে অজ্ঞান অবস্থায় তার নিজ ঘরে রেখে দিয়ে আসে। পরবর্তীতে ভিকটিমের অবস্থা খারাপ হওয়ায় তাকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয় এবং চিকিৎসা করানোর পর জ্ঞান ফিরে আসলে তার সাথে ঘটে যাওয়া বর্ণিত ঘটনা তার মা’কে অবগত করলে ধর্ষণের বিষয়টি জানা যায়। সোমবার (৭জুন) ভিকটিমের মা বাদী হয়ে দুইজনকে আসামী করে থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং- ১৩/২৩৫। চকরিযা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাকের মোহাম্মদ যুবায়ের বলেন, ‘ধর্ষণের ঘটনার বিষয়ে থানায় মামলা রুজু করা হয়েছে বলে তিনি জানান।
আলোকিত প্রতিদিন/ ৭ জুন, ২০২১/ দ ম দ

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

All rights reserved. © Alokitoprotidin
এস কে. কেমিক্যালস এগ্রো লি: এর একটি মিডিয়া প্রতিষ্ঠান