আজ সোমবার, ৩ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ ।   ১৭ জুন ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ভাংচুর,লুন্ঠন,হত্যাচেষ্টা ও সন্ত্রাসী হামালার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

-Advertisement-

আরো খবর

- Advertisement -
- Advertisement -

রানা ইস্কান্দার রহমান

গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি। গাইবান্ধার পলাশবাড়ীতে বাড়ি ভাংচুর, সম্পদ লুন্ঠন, হত্যাচেষ্টা ও সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার (৩০ আগষ্ট) দুপুরে প্রেসক্লাব গাইবান্ধা কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্য কামরুন নাহার জোসনা। তিনি জানান, গত বৃহস্পতিবার (২৪ আগস্ট) আমার দেবর মোঃ আব্দুল মান্নান তার ক্রয়কৃত জমিতে হোটেল ভাড়া দেওয়ার উদ্দেশ্যে নির্মাণকাজ শুরু করেন। ২০২০ সালে মহাসড়ক সম্প্রসারণ কাজ শুরু হলে সরকার জমি অধিগ্রহণ শুরু করে। জমির মূল্য বৃদ্ধি পাওয়ায় বিক্রেতা মোঃ আনোয়ার হোসেন চিহ্নিত সন্ত্রাসী ভাড়া করে উক্ত জমি দখল করে। জমির দলিল দেখানো সত্ত্বেও নানা কৌশলে তিনি মোটা অঙ্কের অর্থ দাবি করেন। এসময় দাবিকৃত টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে এলাকার শীর্ষ সন্ত্রাসী, মাদক কারবারী ও একাধিক নাশকতা মামলার আসামী মোঃ মোবাইদুল ইসলাম, আরিফুল ইসলাম, ফারুক, রাকিবসহ ১০-১২ জনের সন্ত্রাসী বাহিনী আমার দুই দেবর মোঃ আব্দুল মান্নান ও মোঃ একরামুল হককে হত্যার চেষ্টা করে। উক্ত হামলায় প্রাণে বেঁচে গেলেও তারা গুরুত্বর আহত হন। এছাড়াও ঘটনাস্থলে উপস্থিত থাকা আমার ভাতিজা মুজাহিনকে তারা শ্বাসরোধ করে হত্যার চেষ্টা করে। উক্ত ঘটনার পরে সন্ত্রাসী বাহিনী আমাদের ৬ টি বসতবাড়িতে আক্রমণ করে তারা ১০ লাখ ৫০ হাজার নগদ অর্থ, ১২ ভরি স্বর্ণ ও ৩টি ফ্রিজিয়ান জাতের গরু লুট করে বাড়িঘর ভাংচুর, জমির দলিল, সন্তানদের সার্টিফিকেট, ব্যাংকের চেক, জাতীয় পরিচয়পত্র, বাড়ির বিভিন্ন আসবাবপত্রসহ পরিধানের কাপড় পর্যন্ত লুট করে। ঘটনাস্থলে উপস্থিত আমার পরিবারের সদস্যদের মারধর ও প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হয়। উক্ত ঘটনার পরও আমাদের পরিবারের সদস্যদেরকে মুঠোফোনসহ বিভিন্নভাবে প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে পরিবারে সদস্যরা আতঙ্কিত ও প্রাণনাশের ভয়ে বিভিন্ন জায়গায় অবস্থান এবং মানবেতর জীবনযাপন করছি। এ ঘটনার প্রেক্ষিতে পরিবার ও গ্রামের গন্যমাণ্য ব্যক্তিদের সাথে পরামর্শ করে গাইবান্ধা কোর্টে মামলা দায়ের করা হয়েছে। কোর্ট থেকে পলাশবাড়ি থানার কর্মরত পুলিশকে বিষয়টি তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এ পরিস্থিতিতে প্রশাসনকে মামলার যথাযথ তদন্ত করে অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও আমার পরিবারের সদস্যদের জীবনের নিরাপত্তা দেওয়ার করেন ভুক্তভোগী কারুন নাহার জোসনা। সংবাদ সম্মলনে ভুক্তভোগীর জা পারভীন বেগমসহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা এবং প্রেসক্লাব গাইবান্ধা সভাপতি খালেদ হোসেন,সাধারণ সম্পাদক জাভেদ হোসেনসহ অনান্য সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন ।

আলোকিত প্রতিদিন/এপি

- Advertisement -
- Advertisement -