আজ বুধবার, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ ।   ২২ মে ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

কুড়িগ্রামে আবাসিক এলাকায় মোবাইল টাওয়ার নির্মাণ বন্ধ ও অপসারনের দাবিতে মানব বন্ধন

-Advertisement-

আরো খবর

প্রতিনিধি,কুড়িগ্রাম:
কুড়িগ্রাম পৌরসভার ২ ও ৫ নং ওয়ার্ডের আবাসিক এবং ঘনবসতীপুর্ণ চামড়ারগোলা এলাকায় রফিকুল ইসলামের (দর্জি) বাড়িতে আইনের তোয়াক্তা না করে চলমান থাকা মোবাইল নেটওয়ার্ক টাওয়ারের কাজ বন্ধ ও অপসরনের দাবিতে মানব বন্ধন করেছে স্থানীয়রা।
গতকাল সকাল ১১ টায় কুড়িগ্রাম প্রেসক্লাবের সামনে কুড়িগ্রাম-চিলমারী সড়কে ঘন্টাব্যাপী এ মানব বন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এসময় বক্তব্য রাখেন, স্থানীয় বাসিন্দা আলহাজ্ব আব্দুস সামাদ, মনির হোসেন মনু, মোছা: তিন্নি বেগমসহ অন্যান্যরা।
বক্তারা বলেন, নির্মাণাধীন মোবাইল নেটওয়ার্ক টাওয়ার লাগোয়া দেড় শতাধিক পরিবারের বসবাসসহ  ১শ গজের মধ্যে একটি উচ্চ বিদ্যালয়, আবাসিক হাফিজিয়া মাদ্রাসা, একটি মসজিদ এবং ২০ গজের মধ্যে টেরেডেস হোমের একটি হাসপাতাল রয়েছে। এ অবস্থায় মোবাইল টাওয়ারটি চালু করা হলে নিশৃত রেডিয়েশনে হৃদরোগ, ব্রেইনটিউমার, শিশুদের শারীরিক এবং মানষিক সমস্যা ও ক্যান্সারের মতো রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। টাওয়ার নির্মাণ বন্ধে পৌর মেয়র, জেলা প্রশাসকসহ বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দেয়ার পরও কাজ চলমান থাকায় মানব বন্ধন করছেন বলে জানান তারা। অবিলম্বে নির্মাণাধীন মোবাইল নেটওয়ার্ক টাওয়ারটির কাজ বন্ধ করে অপসারণের দাবি জানান বক্তারা।
এব্যাপারে মোবাইল টাওয়ার নির্মাণ করা বাড়ির মালিক রফিকুল ইসলাম (দর্জি) জানান, আমি যেখানে যেখানে অনুমোদন নেয়ার দরকার সেই অনুমোদন নিয়ে মোবাইল টাওয়ার বসাতে দিয়েছি। কাজ প্রায় শেষ। স্থানীয় একজনের বাড়িতে এই টাওয়ার বসাতে না পেরে এসব অভিযোগ করছে।
উল্লেখ্য, জেলা প্রশাসক বরাবর স্থানীয়দের দেয়া অভিযোগে উল্লেখ করেন, হাইকোর্টের নির্দেশনা মোতাবেক এটি আইন বিরোধী। ২০১৯ সালে ১৭ আক্টোবর হাইকোর্ট ১১ দফা নির্দেশনার ২ নং দফায় বলা হয়েছে, মোবাইল টাওয়ার বাসার ছাদ, স্কুল-কলেজ, হাসপাতাল, ক্লিনিক, কারাগার, খেলার মাঠ, জনবসকি এলাকা, হেরিটেজ ও প্রত্নতাত্তিক স্থানে না বসানো এবং যেগুলো বসানো হয়েছে তা অপসারণ।
আলোকিত প্রতিদিন/ ২৭ মে -২০২৩/মওম
- Advertisement -
- Advertisement -