10:33 am |আজ শুক্রবার, ৪ঠা ভাদ্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | ১৯শে আগস্ট ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২০শে মহর্‌রম ১৪৪৪ হিজরি

সংবাদ শিরোনাম:
খানসামায় বেগুন চাষে সফল স্থানীয় কৃষকরা শিবালয়ে পদ্মার ভাঙ্গন রোধে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে পলাশবাড়ীতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত বনবিভাগ ও প্রশাসনের যৌথ   অভিযানে ৪ টি  অবৈধ করাতকল উচ্ছেদ শাজাহানপুরে কিশোর গ্যাংয়ের বিরুদ্ধে থানা পুলিশের অভিযান অব্যহত বঙ্গবন্ধু সৃষ্টিকর্তা ছাড়া কারো কাছে মাথা নত করেননি: লিটন আনোয়ারায় এক ভবঘুরের দায়ের কোপে সুনীল চন্দ্র নাথ খুন হয়েছেন  সাবেক যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রীর স্ত্রী বেগম নিহার চৌধুরী সবাইকে কাঁদিয়ে চলে গেলেন চট্টগ্রামের পটিয়ায় মাকে হত্যা করা নিকৃষ্ট পুত্র আটক ধামরাই-এ পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রী ধর্ষণ, ধর্ষক আরফান আলী আটক




যুবসমাজকে ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক চর্চার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

যুবসমাজকে ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক চর্চার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর




দেশের যুবসমাজকে ক্রীড়া এবং সাংস্কৃতিক চর্চাসহ সমাজসেবায় আন্তরিক হওয়ার আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমরা যখনই সরকারে এসেছি চেষ্টা করেছি দেশের ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক জগৎকে উন্নত করতে।

৫ আগস্ট শুক্রবার সকালে শেখ কামাল জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ পুরস্কার ২০২২ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ কথা বলেন। বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের ৭৩তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে  এ কথা বলেন তিনি।শেখ হাসিনা বলেন, যারা ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক চর্চার জগতে সম্পৃক্ত থাকেন তাদের কারও কারও জীবন একটা সময় খুব দুর্বিষহ হয়ে যায়। শেখ কামালই প্রথম ক্রীড়া জগতে সম্পৃক্তদের সহযোগিতার জন্য ফান্ড গঠন করেছিল। আমি সরকারে আসার পর তাদের জন্য বিভিন্ন ট্রাস্ট ফান্ড গঠন করে দিয়েছি, সিড মানি দিয়েছি এবং আরও ফান্ড জোগাড় করে দেবো যেনও তাদেরকে আর কষ্ট করতে না হয়। ‘একটা বয়স আসলে তাদের আর অর্থ উপার্জনের সুযোগ থাকে না, সেটা যেন না হয় আমরা ব্যবস্থা নেব। খেলোয়াড়দের জন্য যেমন কল্যাণ তহবিল গঠন করা হয়েছে, সাংস্কৃতিক জগতের জন্যও আমরা করে দিয়েছি। শিল্প-সংস্কৃতির জগতের সঙ্গে যারা সম্পৃক্ত তাদের জন্য ট্রাস্ট ফান্ড করে আমরা সহযোগিতা দিয়ে যাচ্ছি।  চিকিৎসা বা অন্যকোনও সহযোগিতা পায় এই চেষ্টা আমরা করে যাচ্ছি।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, মুক্তিযোদ্ধা শেখ কামাল যে নীতি, আদর্শ, কর্মপন্থা, দিক-নির্দেশনা রেখে গেছেন, আমি মনে করি তা অনুসরণ করে আমাদের শিশু ও যুব সমাজ নিজেদেরকে গড়ে তুলবে। শুধু নিজের দেশের জন্য না, মেধা-মনন বিকশিত করে আন্তর্জাতিক পর্যায়েও যেনও আমরা বাংলাদেশের মর্যাদা বৃদ্ধি করতে পারি সেভাবে আমাদের ছেলেমেয়েরা কাজ করবে- সেটাই আমি চাই। অনুষ্ঠানে পুরস্কার প্রাপ্তদের অভিনন্দন জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, বিজয়ীদের দেখে আমাদের আরও বেশি সংখ্যক ছেলেমেয়ে ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক চর্চায় ঝুকবে বলে আমি আশা করি।

আলোকিত প্রতিদিন/ ০৫ আগস্ট ,২০২২/ মওম

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন











All rights reserved. © Alokitoprotidin
এস কে. কেমিক্যালস এগ্রো লি: এর একটি মিডিয়া প্রতিষ্ঠান