1:52 pm |আজ বৃহস্পতিবার, ১২ই জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | ২৬শে মে ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৪শে শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরি

সংবাদ শিরোনাম:
সংসদ ভেঙে দিয়ে নির্বাচন দিতে সরকারকে ৬ দিনের সময় দিলেন ইমরান খান না ফেরার দেশে চলে গেলেন সত্যাশ্রয়ী মুক্তবুদ্ধি চর্চার অগ্রপথিক সেলিম বাগেরহাটে ট্রলির ধাক্কায় ২ জন নিহত লক্ষ্মীপুরে চাঁদাবাজির মামলা করায় প্রবাসীর বাড়ির  প্রাচীর ও ঘর ভাঙচুর, হুমকির অভিযোগ ক্রেতার অভাবে বিপুল পরিমাণ তেল নিয়ে সাগরে ভাসছে রাশিয়ার জাহাজ ফটিকছড়িতে ৭৮টি চোরাই মোবাইল ও কার সহ দুই যুবক গ্রেপ্তার  কুড়িগ্রামের রৌমারীতে মা ও শিশুকে হত্যার ঘটনায় ২ আসামীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব সাভারে জন্মদিনের কথা বলে বন্ধুদের নিয়ে প্রেমিকাকে গণধর্ষণ ঘিওরে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ মামলায় এক যুবককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড সমুদ্রে ট্রলার ডুবি, ১০ ঘণ্টা পর ১৫ জেলে জীবিত উদ্ধার




ঈদের দিনেও বনবিভাগের অভিযানঃ পাচারকালে ২০০ ঘনফুট গাছ জব্দ

ঈদের দিনেও বনবিভাগের অভিযানঃ পাচারকালে ২০০ ঘনফুট গাছ জব্দ




 আবু সায়েম
ঈদের দিনেও থেমে নেই বনবিভাগের অভিযান। চট্টগ্রাম দক্ষিণ বনবিভাগের আওতাধীন বারবাকিয়া রেঞ্জের শ্বাসরুদ্ধকর অভিযানে কাঠ চোরাকারবারিদের পরাস্ত করে ৯ টি গর্জন গাছ উদ্ধার করা হয়েছে।  ২ মে  রাত ১১ টা  থেকে ৩ মে  মঙ্গলবার ভোর ৪ টা পর্যন্ত বারবাকিয়া রেঞ্জ কর্মকর্তা মোঃ হাবিবুল হক ও  বিট কর্মকর্তার  নেতৃত্বে ও একদল বনকর্মীর সহযোগিতায় টইটং বিটের মধুখালি এলাকায় দীর্ঘ ৫ ঘন্টা সফল অভিযান শেষে কাঠ চোরাকারবারি সিন্ডিকেটকে পরাস্ত করে ৯ টি গর্জন গাছ জব্দ করা হয়। আটককৃত গর্জন গাছের পরিমাণ প্রায় ২০০ ঘনফুট।  বারবাকিয়া রেঞ্জ কর্মকর্তা মোঃ হাবিবুল হক বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে টইটং বিটের মধুখালি এলাকায় দীর্ঘ ৫ ঘন্টার শ্বাসরুদ্ধকর অভিযানে প্রায় ৯ টি গর্জন গাছ জব্দ করে  রেঞ্জ হেফাজতে নিয়ে আসি। টইটং এর প্রভাবশালী কাঠ ব্যবসায়ী মাহমুদ মাঝির নেতৃত্বে স্থানীয়  ফরিদ মাঝিসহ গাছ চোরাকারবারি সিন্ডিকেটের সদস্যরা  বিভিন্ন কৌশলে অভিযান ব্যাহত করার চেষ্টা করে। এমনকি মাহমুদ মাঝি  টইটং এবং হাজি বাজার এলাকার ট্রলি ও পিক আপ চালকদের গাছ পরিবহনে বিরত থাকার হুমকি প্রদান করে।  ট্রলি এবং পিক আপ এর বিকল্প ব্যাবস্থা গ্রহণ  করলে মাহমুদ মাঝির লোকজন রাস্তা কেটে দিয়ে গাছ পরিবহনে বাধা দেয়। তার সব অপচেষ্টা নস্যাৎ হবার পর প্রশাসনের উচ্চ পর্যায় থেকে বনবিভাগের উপর চাপ প্রয়োগ করে। সবকিছু উপেক্ষা করে ৯ টি গর্জন গাছ জব্দ করে রেঞ্জ হেফাজতে নিয়ে আসা হয়েছে। অভিযানে বিট কর্মকর্তা, স্টাফ এবং সুফল প্রকল্পের ২০০ উপকারভোগী অংশ গ্রহণ করে।  মাহমুদ মাঝিসহ এ ঘটনায়  জড়িতদের বিরুদ্ধে বন আইনে মামলা দায়ের করা হবে।  চট্টগ্রাম দক্ষিণ বনবিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মোঃ শফিকুল ইসলাম বলেন, বনবিভাগ বনভূমি জবরদখল, অবৈধ কাঠ পাচার এবং পাহাড় কাটার বিরুদ্ধে সজাগ ও সতর্ক রয়েছেন। নিয়মিত অভিযানের অংশ হিসেবে বারবাকিয়া রেঞ্জের অভিযানে ২০০ ঘনফুট গর্জন গাছ জব্দ করে রেঞ্জ হেফাজতে নিয়ে আসা হয়েছে। মাহমুদ মাঝিসহ  এ ঘটনায়  জড়িতদের বিরুদ্ধে বন আইনে মামলা দায়ের করা হবে। সরকারি সম্পদ রক্ষার্থে  বন অপরাধ দমনে তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করার আহ্বান জানান তিনি।
আলোকিত প্রতিদিন/ ০৫ মে ,২০২২/ মওম

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন











All rights reserved. © Alokitoprotidin
এস কে. কেমিক্যালস এগ্রো লি: এর একটি মিডিয়া প্রতিষ্ঠান