10:04 am |আজ মঙ্গলবার, ১১ই মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২৫শে জানুয়ারি ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২১শে জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরি




যে দেশে স্ত্রীর জন্মদিন ভুলে যাওয়া দণ্ডনীয় অপরাধ

যে দেশে স্ত্রীর জন্মদিন ভুলে যাওয়া দণ্ডনীয় অপরাধ




লাইফস্টাইল ডেস্ক

প্রত্যেক মানুষই তার জন্মদিনকে রাঙিয়ে তুলতে চায়। এ দিন তার চোখে-মুখে ভিন্নরকম সুখ দেখা যায়।জন্মদিনে মানুষ  প্রিয়জনদের কাছ থেকে গিফ্ট পেতে পছন্দ করে।সে চায়,প্রিয়জনরা তার জন্মদিনকে স্মরণীয় করে রাখুক।আনন্দময় করে তোলুক। তবে অনেকে  ধর্মীয় বিধি মুতাবিক বা অন্য কোন কারণে জন্মাদিবসকে তেমন উদযাপন করেন না।কেউ তো আবার ব্যস্ততার কারণে নিজের পয়দা দিবসকে ভুলেই যান। দাম্পত্যজীবনে স্ত্রীর জন্মদিন মনে রাখা নিয়ে অনেক পুরুষকেই কথা শুনতে হয়।স্ত্রীর কাছে স্বামীরাই একমাত্র আপনজন।আর তাই স্বামী তার জন্মদিন ভুলে গেলে মন খারাপ এমনকি ঝগড়াঝাঁটি করতেও কম করেন না অনেক স্ত্রী। অবিশ্বাস্য হলেও সত্য , এমন একটি দেশ আছে, যেখানে স্ত্রীর জন্মদিন মনে রাখা বাধ্যতামূলক। এমনকি যদি কোনো নারী এ নিয়ে পুলিশে অভিযোগ করেন, তবে অভিযুক্ত স্বামীর জেল পর্যন্ত হতে পারে। খবর দ্য ফ্রি প্রেস জার্নালের।প্রশান্ত মহাসাগরের হাওয়াই ও নিউজিল্যান্ডের মাঝে ছোট্ট দ্বীপদেশ সামোয়ায় প্রচলিত আছে এমনই কঠোর আইন। সেখানে স্ত্রীর জন্মদিন ভুলে যাওয়াকে আইনগতভাবে দণ্ডনীয় অপরাধ বলে গণ্য করা হয়। এ নিয়ে থানায় গিয়ে অভিযোগ করতে পারেন স্ত্রী।যদিও অভিযোগ দায়েরের পর সেই স্বামীকে থানায় এনে এক প্রকার মুচলেকা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়। ভবিষ্যতে তিনি যাতে এই ধরনের ভুল আর না করেন তা নিয়ে সতর্কও করে দেয়া হয়। তবে বারবার এই একই ‘ভুল’ করলে কারাদণ্ডাদেশও দিতে পারেন সামোয়ার আদালত।

আতারা

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন











All rights reserved. © Alokitoprotidin
এস কে. কেমিক্যালস এগ্রো লি: এর একটি মিডিয়া প্রতিষ্ঠান