9:33 pm |আজ শনিবার, ১২ই অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২৭শে নভেম্বর ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২১শে রবিউস সানি ১৪৪৩ হিজরি




অবতরণকালে নভোএয়ারের চাকা বিস্ফুরণ, অল্পে রক্ষা  ৬৭ যাত্রীর

অবতরণকালে নভোএয়ারের চাকা বিস্ফুরণ, অল্পে রক্ষা  ৬৭ যাত্রীর




প্রতিনিধি,নীলফামারী

ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা নভোএয়ারের একটি ফ্লাইট সৈয়দপুর বিমানবন্দরে অবতরণের সময় এয়ারবাসের সামনের চাকা বিস্ফুরণ হওয়ার ঘটনা ঘটেছে।  বুধবার সন্ধ্যা ৭ টা ২০ মিনিটে সংঘটিত এ ঘটনায় অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছে ৬৭ জন আকাশযাত্রী।

তবে  হঠাৎ চাকা বিস্ফুরণ হওয়া এবং অতর্কিত স্টার্ট বন্ধে হোঁচট খাওয়ায় চরম ঝাকুনিতে আহত হয়েছেন অনেকে। এয়ারবাসটিও ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। ফলে বিকল হয়ে রানওয়ের মাঝ বরাবর অবস্থান করায় ফ্লাইট উড্ডয়ন ও অবতরণ বন্ধ হয়ে গেছে। সেই সাথে যাত্রীরা ভীত সন্ত্রস্ত হয়ে পড়েছে এবং ঢাকাগামীরা চরম বিপাকে পড়েছে। দুর্ঘটনা কবলিত এয়ারবাসের যাত্রী নীলফামারীর জলঢাকা পৌরসভার মেয়র ইলিয়াস হোসেন বাবলু জানান, নভোএয়ারের ভিকিউ৯৬৭ ফ্লাইট টি সন্ধা ৬ টা ৪৫ মিনিটে ঢাকা থেকে উড্ডয়ন করে। সন্ধ্যা ৭ টা ২০ মিনিটে ৬৭ জন যাত্রী নিয়ে সৈয়দপুর বিমানবন্দরে অবতরণের সময় সামনের চাকা রানওয়ে ছোঁয়া মাত্রই বিকট শব্দে ফেটে যায় (বাস্ট করে)। এতে চলন্ত এয়ারবাসের চাকা রানওয়ের কংক্রিটে ঘষা লেগে ধোঁয়ার সৃষ্টি হয়। এমন পরিস্থিতিতে পাইলট দ্রুত এয়ারবাসটির ইঞ্জিন জরুরী ভিত্তিতে অফ করে দেন। এতে  রানওয়েতেই বিকল হয়ে পড়ে। পুরো এয়ারবাস অন্ধকারাচ্ছন্ন হয়ে পড়ে। বিকট শব্দ এবং এবড়ো খেবড়ো ভাবে এয়ারবাস চলতে থাকায় যাত্রীরা ভয়ে আতংকিত হয়ে হৈ-হুল্লোড় শুরু করে। হঠাৎ অস্বাভাবিকভাবে থেমে যাওয়ায় তাদের আতংকের মাত্রা বেড়ে যায় এবং কান্নার রোল পড়ে। পরে গেট খুলে দিলে তড়িঘড়ি করে যাত্রীরা সন্ত্রস্ত অবস্থায় রানওয়েতে নেমেই দৌড়ে ছুটতে থাকেন। এতে অনেকেই হুমড়ি খেয়ে পড়ে গিয়ে আহত হয়েছেন। শিশু নারী ও বয়স্করা এসময় চরম শোচনীয় পরিস্থিতিতে পড়েন। অনেকেই লাফিয়ে নামতে গিয়ে আঘাত পেয়েছেন।

এদিকে এয়ারপোর্ট থেকে কর্মকর্তা কর্মচারীরাও দ্রুত ছুটে আসেন। তারা আহত যাত্রীদের সেবা দেয়ার চেষ্টা করেন। বড় ধরনের দূর্ঘটনা থেকে রক্ষা পায় এয়ারবাসটি। কিন্তু পুরো বিমানবন্দর জুড়ে অন্যরকম এক পরিবেশের সৃষ্টি হয়। ঢাকা থেকে আগত যাত্রীরা এমন পরিস্থিতিতে সময়ের সাথে ধকল কাটিয়ে গন্তব্যের উদ্দেশ্যে বিমানবন্দর ছাড়লেও ঢাকায় যাওয়ার জন্য আগত যাত্রীরা অনিশ্চয়তার মধ্যে হতাশ হয়ে পড়েন।

নভোএয়ার কর্তৃপক্ষ তাদের আশ্বস্ত করলেও শেষ পর্যন্ত তাদের যাত্রা কখন সম্ভব হবে সে বিষয়ে সঠিক কোন তথ্য বা নিশ্চয়তা দিতে না পারায় তারা বিপাকে পড়েন। বিমানবন্দরে অবস্থান করবেন না ফিরে যাবেন এ নিয়ে সিদ্ধান্তহীনতায় ভোগেন। রাত যত গড়ায় তাদের ভোগান্তি তত বাড়তে থাকে। সৈয়দপুর আঞ্চলিক বিমানবন্দরের ম্যানেজার সুপ্লব কুমার ঘোষ মুঠোফোনে জানান, এয়ারবাসে আগুন লাগার কোন ঘটনা ঘটেনি। শুধু চাকা ফেটে গেছে। এটা বড় কোন সমস্যা নয়। যাত্রীদের প্রয়োজনে এয়ারক্রাফট দিয়ে ঢাকায় পৌছানো হবে। নভোএয়ার কর্তৃপক্ষের স্থানীয় মার্কেটিং এন্ড সেলস্ অফিসার বাপ্পা জানান, সামনের চাকা বাস্ট হওয়ায় এয়ারবাস বিকল হয়েছে। এয়ারপোর্ট কর্তৃপক্ষ সবগুলো ফ্লাইট স্থগিত করেছেন। তাই আগামীকাল যাত্রীদের অন্য ফ্লাইটে ঢাকায় পৌঁছানো হবে।

আতারা // এপি

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন











All rights reserved. © Alokitoprotidin
এস কে. কেমিক্যালস এগ্রো লি: এর একটি মিডিয়া প্রতিষ্ঠান