3:54 am |আজ মঙ্গলবার, ১৯শে শ্রাবণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ৩রা আগস্ট ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২৩শে জিলহজ ১৪৪২ হিজরি

সংবাদ শিরোনাম:
কুষ্টিয়াতে তিন বছরের ভালোবাসা সুলভ মূল্যে বিক্রি করলো তরুণী

কুষ্টিয়াতে তিন বছরের ভালোবাসা সুলভ মূল্যে বিক্রি করলো তরুণী

প্রতিনিধি, কুষ্টিয়া:
ভালোবাসার জন্য সম্রাট শাহজাহান বানিয়েছিলেন তাজমহল। ভালোবাসার টানে সম্প্রতি ইউরোপের বিভিন্ন দেশ থেকে বাংলাদেশে পাড়িজমিয়েছেন বহু বিদেশী। ভালোবাসা বিক্রি সেটা তো বাংলা সিনেমায়  দেখা যায়। বড় লোকের মেয়েকে ভালোবাসে রিক্সা ওয়ালার ছেলে। নায়িকার বাবা রিক্সা ওয়ালার ছেলেকে মেনে নিতে অস্বীকার করে। এক পর্যায় মেয়েকে ছেড়ে যেতে নায়ক কে টাকার লোভ দেখায়। নায়ক প্রথমে নিতে অস্বীকার করলেও বাবার অপারেশন বা বোনের বিয়ের জন্য টাকা নিয়ে নায়িকার জীবন থেকে সরে যায়। সিনেমার শেষে অবশ্য আবার তাদের মিলও হয়ে যায়। সিনেমার কাহিনির সাথে মিল না থাকলেও সিনেমা স্টাইলে কুষ্টিয়া তে বিক্রি হলো তিন বছরের ভালোবাসা। কুষ্টিয়া কুমারখালী উপজেলা যদুবয়রা ইউনিয়নের জোতমোড়া গ্রামে ঘটলো এমন ঘটনা।  স্থানীয় বাসিন্দা ও ভিকটিম বলেন, জোতমোড়া গ্রামের শহীদ শেখের ছেলে সবুজ ঢাকাতে ডেকো/ডিপিসিতে চাকুরী করার সময় ঢাকা আশুলিয়াতে একটি গার্মেন্টসে চাকুরী করা শিলার সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এক পর্যায় তারা স্বামী স্ত্রী পরিচয়ে ঢাকাতে বাসা ভাড়া করে থাকে। তাদের মধ্যে একাধিকবার শারীরিক সম্পর্ক গড়ে ওঠে। কিন্তু গত কয়েকদিন আগে সবুজ শিলাকে জানায় তার মা বাবা তাকে না জানিয়ে আমার ( সবুজের) বিয়ে ঠিক করেছে।আমি এ বিয়েতে রাজি না, কিন্তু মা স্টোকারের করছে। আমি এই বিয়েতে রাজি না হলে মা মারা যাবে। এই কথা বলে সবুজ কুষ্টিয়া চলে আসে। এর পর তার মোবাইল বন্ধ। এর পর গত বুধবার (২৬/০৫/২১) শিলা সবুজের বাড়িতে এসে বিয়ের দাবিতে অনশন শুরু করে। এক পর্যায় গতরাতে ২৮/০৫/২১ গ্রামের মানুষের উপস্থিতিতে ১ লক্ষ ৮০ হাজার টাকায় শিলা তার তিন বছরের ভালোবাসা বিক্রি করে দিয়ে ঢাকাতে ফিরে যায়। বিষয়টি এখন টক অব দ্যা কুষ্টিয়া। সব খানেই একই আলোচনা। অনেককেই বলতে শোনা যায় ভালোবাসা বিক্রি করতে এই প্রথম দেখলাম। কেউ বলছেন ছেলেরা জোর পূর্বক এটা করেছে। আবার কেউ ভালোবাসা বিক্রির জন্য মেয়েকে দোষ দিচ্ছেন। তবে যে যাই বলুক ছেলের শিলার কাছ থেকে ছেলের ভালোবাসা কিনে স্বস্তিতে সবুজের পরিবার।

আলোকিত প্রতিদিন/২৯ মে, ২০২১/ দ ম দ

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

All rights reserved. © Alokitoprotidin
এস কে. কেমিক্যালস এগ্রো লি: এর একটি মিডিয়া প্রতিষ্ঠান