11:07 pm |আজ বৃহস্পতিবার, ১২ই ফাল্গুন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ২৫শে ফেব্রুয়ারি ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সংবাদ শিরোনাম:
ইইডি রাজশাহীর তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলীর পদ এক বছর থেকে শূন্য সুনামগঞ্জে ফ্রি রক্তের গ্রুপ নির্ণয় ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার ৩৪ চুয়েটে গণিত বিভাগের আয়োজনে ‘ম্যাটল্যাব ও ল্যাটেক্স’ বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত সাভার ইউনিয়নে প্রধানমন্ত্রীর উপহার ভিজিডি এর চাউল বিতরণ কর্মসূচির উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রীর কাছে মুজাক্কির হত্যার সুষ্ঠু বিচারের দাবি পরিবারের সাদুল্লাপুরে জাতীয় পরিচয়পত্র স্মার্ট কার্ড বিতরণ সাংবাদিক মুজাক্কির হত্যা: রাজশাহীতে মানববন্ধন ও সমাবেশ চট্টগ্রাম কাস্টমসের নিলামে বিভিন্ন পন্যসহ শতাধিক সিএনজি রিকশা সুনামগঞ্জে কালের সাক্ষী শত বছরের পুরনো ঐতিহ্যবাহী পাগলা বড় মসজিদ
জামালপুরে চাঞ্চল্যকর ট্রিপল মার্ডার মামলায় একজনের ফাঁসি ও একজনের যাবজ্জীবন

জামালপুরে চাঞ্চল্যকর ট্রিপল মার্ডার মামলায় একজনের ফাঁসি ও একজনের যাবজ্জীবন

প্রতিনিধি, জামালপুর: জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে ইউনিয়ন পরিষদের সদস্যসহ তিনজনকে হত্যার দায়ে একজনকে ফাঁসি ও একজনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছেন জামালপুরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক জিন্নাত জাহান জুনু। বুধবার (২৭ জানুয়ারি) দুপুরে চাঞ্চল্যকর এ মামলার রায়ে মৃত্যুদন্ডের পাশাপাশি আসামিকে ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ড প্রদান করা হয়। জামালপুরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের অতিরিক্ত পিপি এডভোকেট আবুল কাশেম তারা জানান, ২০১৩ সালের ১৪ নভেম্বর সরিষাবাড়ি উপজেলার চরনলসন্ধা গ্রামের ফজলুর রহমান মেম্বার, সিরাজগঞ্জে  কাজিপুরের কাজল গ্রামের হযরত আলী তালুকদারের ছেলে কুরবান আলী তালুকদার ও গাদু শেখের ছেলে ইউসুফ আলী সরিষাবাড়ি থেকে ইঞ্জিনচালিত নৌকাযোগে বাড়ি ফেরার পথে চরনলসন্ধা খেয়া ঘাট এলাকা থেকে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে অপহরণ করে নিয়ে যায় টাংগাইল জেলার ভূয়াপুরের রামাইল গ্রামের আব্দুস সামাদ মেম্বারের ছেলে বেলাল ও চরশুশুয়া গ্রামের চাঁন মাহমুদ মন্ডেলের ছেলে হুরমুজের নেতৃত্বে। এ ঘটনার পরদিন ফজলুর রহমান মেম্বারের স্ত্রী সুরাইয়া খাতুন বাদী হয়ে ১৪ জনের নামে সরিষাবাড়ি থানায় মামলা দায়ের করে।

ঘটনার তিনদিন পর ১৭ নভেম্বর ভূয়াপুরের যমুনা নদী থেকে ইউসুফ আলী ও পাঁচদিন পর ১৯ নভেম্বর ফজলুর রহমান মেম্বারের ক্ষতবিক্ষত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

১১ জন স্বাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহন শেষে বেলালকে ৩০২ ধাঁরায় মৃত্যুদন্ডের আদেশ দেন। একই সাথে ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ড দেওয়া হয়। অপর আসামী হুরমুজকে যাবতজীবন কারাদন্ড। একই সাথে ১০ হাজার টাকা। অর্থদন্ড দেওয়া হয়। মামলার অপর ১২ আসামীকে বেকসুর খালাস দিয়েছে আদালত।

আলোকিত প্রতিদিন/২৭ জানুয়ারি’২১/এসএএইচ

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

All rights reserved. © Alokitoprotidin
এস কে. কেমিক্যালস এগ্রো লি: এর একটি মিডিয়া প্রতিষ্ঠান