11:06 pm |আজ বৃহস্পতিবার, ১২ই ফাল্গুন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ২৫শে ফেব্রুয়ারি ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সংবাদ শিরোনাম:
ইইডি রাজশাহীর তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলীর পদ এক বছর থেকে শূন্য সুনামগঞ্জে ফ্রি রক্তের গ্রুপ নির্ণয় ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার ৩৪ চুয়েটে গণিত বিভাগের আয়োজনে ‘ম্যাটল্যাব ও ল্যাটেক্স’ বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত সাভার ইউনিয়নে প্রধানমন্ত্রীর উপহার ভিজিডি এর চাউল বিতরণ কর্মসূচির উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রীর কাছে মুজাক্কির হত্যার সুষ্ঠু বিচারের দাবি পরিবারের সাদুল্লাপুরে জাতীয় পরিচয়পত্র স্মার্ট কার্ড বিতরণ সাংবাদিক মুজাক্কির হত্যা: রাজশাহীতে মানববন্ধন ও সমাবেশ চট্টগ্রাম কাস্টমসের নিলামে বিভিন্ন পন্যসহ শতাধিক সিএনজি রিকশা সুনামগঞ্জে কালের সাক্ষী শত বছরের পুরনো ঐতিহ্যবাহী পাগলা বড় মসজিদ
সাবেক মন্ত্রী লতিফ সিদ্দিকীর দখলে থাকা ৫০ কোটি টাকা মূল্যের সরকারি জমি উদ্ধার

সাবেক মন্ত্রী লতিফ সিদ্দিকীর দখলে থাকা ৫০ কোটি টাকা মূল্যের সরকারি জমি উদ্ধার

সবুজ সরকার, টাঙ্গাইল : আওয়ামী লীগের সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী আব্দুল লতিফ সিদ্দিকীর অবৈধভাবে দখলে থাকা ৬৬ শতাংশ জমির স্থাপনা উচ্ছেদ করেছে টাঙ্গাইল জেলা প্রশাসন। রোববার (২৪ জানুয়ারি) সকালে শহরের প্রাণকেন্দ্র আকুরটাকুর পাড়া এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ভেক্যু দিয়ে স্থাপনা গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়। জেলা প্রশাসক কার্যলয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রোজলিন শহীদ চৌধুরী ও সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) খাইরুল ইসলামের নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানের সময় আব্দুল লতিফ সিদ্দিকীর পক্ষের কাউকে দেখা যায়নি।

স্থানীয়রা জানান, আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী টাঙ্গাইল শহরের আকুর টাকুর পাড়া মৌজায় ১৯৭২ সালে ২৪২ খতিয়ানের ৭৮৮ দাগে ৬৬ শতাংশ জমিটি লিজ নিয়ে ভোগ করে আসছিলেন। পরে তিনি ওই জমিতে মার্কেট নির্মাণ করেন। তবে মার্কেটটি চালু করতে পারেনি। এরপর তিনি জমিটির নিজের নামে কাগজ তৈরি করেন।

ম্যাজিস্ট্রেট রোজলিন শহীদ চৌধুরী বলেন, ‘শহরের আকুর টাকুর পাড়া মৌজায় ২৪২ খতিয়ানের ৭৮৮ দাগে প্রায় ৫০ কোটি টাকা মূল্যের ৬৬ শতাংশ জমিটি দীর্ঘদিন ধরে সাবেক মন্ত্রী আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী ভূয়া কাগজ তৈরি করে জমিটি ভোগ দখল করে আসছিলেন। বিষয়টি নিয়ে মামলা হলে উচ্চ আদালত লতিফ সিদ্দিকীর জাল দলিল বাতিল করে সরকারের পক্ষে রায় দেন। পরে জেলা প্রশাসক ড. মো. আতাউল গনির নির্দেশে অভিযান পরিচালনা করে অবৈধভাবে দখলে থাকা ৬৬ শতাংশ জমির স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। উদ্ধারকৃত জমিটি জেলা প্রশাসনের তত্বাবধানে নেওয়া হয়েছে।’

সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) খাইরুল ইসলাম বলেন, ‘সরকারি সম্পত্তি দখলদার যত প্রভাবশালী হোক তাদের হাত থেকে পর্যায়ক্রমে সকল জমি ও স্থাপনা উচ্ছেদ করে প্রশাসনের নিয়ন্ত্রণে নেওয়া হবে।’

 

আলোকিত প্রতিদিন/২৪ জানুয়ারি-২০২১/জেডএন

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

All rights reserved. © Alokitoprotidin
এস কে. কেমিক্যালস এগ্রো লি: এর একটি মিডিয়া প্রতিষ্ঠান