8:43 pm |আজ শনিবার, ১৩ই অগ্রহায়ণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ২৮শে নভেম্বর ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

সংবাদ শিরোনাম:
ফুলবাড়ীতে মাস্ক না পরায় ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানা কলাপাড়ায় স্বাস্থ্য-সহকারীদের বেতন-বৈষম্য নিরসনের দাবিতে কর্ম বিরতি পালন নাটোরে র‌্যাবের অভিযানে ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার সরকারের কাজ করার ক্ষমতা আছে, তবে বাঁধ নির্মাণে সময়ের প্রয়োজন- প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক গাইবান্ধা জেলা বারের নির্বাচনী তফশীল তিনদিনের মধ্যে ঘোষণা না করলে কর্মবিরতির হুশিয়ারী নোয়াখালী বেগমগঞ্জের আলোচিত অস্ত্রধারী ইমন গ্রেফতার গাইবান্ধার পলাশবাড়ী পৌরসভা নির্বাচনে প্রতীক পেলেন প্রার্থীরা সাভারে মেয়ে ও তার স্বামীর অত্যাচারের হাত থেকে বাঁচতে বাবা-মায়ের সংবাদ সম্মেলন  আশুলিয়ায় নিখোঁজের ১০দিন পর যুবকের অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার : আটক-১ ডিএএমএম মানিকগঞ্জ শাখার উদ্যোগে পুরস্কার বিতরণ ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত
লাদাখের সীমান্ত থেকে সেনা সরিয়ে নিতে রাজি হয়েছে ভারত-চীন

লাদাখের সীমান্ত থেকে সেনা সরিয়ে নিতে রাজি হয়েছে ভারত-চীন

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ পূর্ব লাদাখের যে এলাকায় ভারত ও চীনের সেনাবাহিনীর মধ্যে সংঘাত হয়েছিল দু’দেশই সেখান থেকে পুরোপুরি সেনা সরিয়ে নিতে রাজি হয়েছে। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সেখান থেকে সেনা সরিয়ে নেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে। এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে যে, দু’দেশের মধ্যে সম্পর্কের উন্নতি ও দু’দেশের সামগ্রিক উন্নতির জন্য সীমান্তে শান্তি বজায় রাখা জরুরি। সে কারণেই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। দু’দেশের মধ্যে কূটনৈতিক পর্যায়ের আলোচনারপর শুক্রবার (২৪ জুলাই) সেনা সরিয়ে নেওয়ার বিষয়ে একমত হয় ভারত ও চীন। গত ১৪ জুলাই সেনাবাহিনীর উচ্চ পর্যায়ের বৈঠকের পর যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল সে অনুযায়ী সেনা সরানোর কাজ হয়নি। তাই নতুন করে আরও একবার বৈঠক হয়েছে। এবারের বৈঠকে দু’দেশই জানিয়েছে যে, তারা সেনা সরিয়ে নেবে। ভারতের কেন্দ্রীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, শুক্রবার দু’দেশ সেনা সরিয়ে নেওয়ার বিষয়ে সম্মতি জানিয়েছে। কিন্তু কীভাবে সেনা সরিয়ে নেওয়া হবে তা নিয়ে দু’দেশের সেনা পর্যায়ে খুব শিগগিরই আরও একটি বৈঠক হবে। সেখানেই এ বিষয়ে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। একটি বিবৃতিতে বলা হয়েছে, যত দ্রুত সম্ভব পূর্ব লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর সীমান্ত এলাকা থেকে সেনা সরিয়ে নেওয়ার বিষয়ে রাজি হয়েছে চীন। দু’দেশের মধ্যে চুক্তি অনুযায়ী যেন শান্তি বজায় থাকে এবং দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের আরও উন্নতি হয় সেজন্য এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। গত ৫ জুলাই থেকে দু’দেশের মধ্যে কূটনৈতিক স্তরে আলোচনা চলছে। অবশেষে দু’পক্ষই এ বিষয়ে একমত প্রকাশ করেছে। ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভাল ও চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই গত ৫ জুলাই প্রায় দু’ঘণ্টা ধরে ফোনে কথা বলেছেন। সে সময় পূর্ব লাদাখে দু’দেশের সেনাবাহিনীর মধ্যে সংঘাত ও সীমান্তে উত্তেজনা প্রশমন নিয়ে আলোচনা হয়। তারপরেই ৬ জুলাই থেকে কূটনৈতিক স্তরের আলোচনা শুরু হয় দু’দেশের মধ্যে। কেন্দ্রীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলছে, অবশেষে শুক্রবার দু’দেশই সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে, এতদিন দু’দেশের মধ্যে উচ্চপর্যায়ের যে বৈঠক হয়েছে সেই সিদ্ধান্তগুলো কার্যকর করতে হবে। তারপরেই দু’দেশ সিদ্ধান্ত নেয় যে খুব তাড়াতাড়ি ভারত ও চীনের সেনা পর্যায়ের আরও একটি বৈঠক হবে। সেখানেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে কীভাবে ও কখন সেনা সরিয়ে নেবে দু’দেশ। এই সিদ্ধান্ত কার্যকর ও সীমান্তে শান্তি বজায় রাখতে দু’দেশকেই সমানভাবে এগিয়ে আসতে হবে বলে ওই বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

 

আলোকিত প্রতিদিন/২৫ জুলাই’২০/এসএএইচ

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

All rights reserved. © Alokitoprotidin
এস কে. কেমিক্যালস এগ্রো লি: এর একটি মিডিয়া প্রতিষ্ঠান