আজ রবিবার, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ ।   ১৬ জুন ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ভিন্নমাত্রা অ্যাওয়ার্ড পেলেন আলোকিত প্রতিদিন সম্পাদক ড. সৈয়দ নুরুল ‍হুদা রনো

-Advertisement-

আরো খবর

- Advertisement -
- Advertisement -

::নিজস্ব প্রতিবেদক::
মাসিক ভিন্নমাত্রা প্রতিবারের মত এবারও বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে ভিন্নমাত্রা অ্যাওয়ার্ড ঘোষণা করেছে। ‌‘সাহসিকতা ও সাংবাদিকতায় এই অ্যাওয়ার্ড পাচ্ছেন ‘দৈনিক আলোকিত প্রতিদিন’-এর সম্পাদক ড. সৈয়দ নুরুল ‍হুদা রনো। করোনাকালীন দুর্যোগের কারণে অনানুষ্ঠানিক ঘোষণা করা হয় ‘ভিন্নমাত্রা অ্যাওয়ার্ড-২০২০’। আয়োজকরা জানান , সব কিছু ঠিকঠাক হলে পরবর্তীতে আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করার পরিকল্পনা রয়েছে তাদের। পত্রিকার ১১তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে নির্ধারিত দিনেই ঘোষণা করা হলো।

সৈয়দ নুরুল হুদা রনো ১৯৭৮ সালের ১ জানুয়ারি মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলার বড়টিয়া ইউনিয়নের হিজুলিয়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। সাহিত্যজগতে তিনি সৈয়দ রনো নামে পরিচিত। তিনি একাধারে কবি, কথাসাহিত্যিক, নাট্যকার, ঔপন্যাসিক, সাংবাদিক। প্রকাশিত গ্রন্থ অর্ধশতাধিক। পরিবারে তিন ভাই এবং পাঁচ বোনের মধ্যে সবার বড় সৈয়দ রনো স্কুল শিক্ষক পিতা আলহাজ সৈয়দ আব্দুল লতিফ, এবং মা আলেয়ার নাহার হাওয়ার কাছ থেকেই পেয়েছেন পাঠাভ্যাস। কবি আল মাহমুদ তাকে তারুণ্যের কবি বলে অভিহিত করেছেন। অধ্যাপক এমাজউদ্দীন আহমদ তাকে বলেছেন দুর্দান্ত দ্রোহের কবি।

এর আগে তিনি ইছামতি সাহিত্য পরিষদ পুরস্কার- ২০১০, বাহন সাহিত্য পরিষদ পুরস্কার- ২০১১, গীতালী ললিতকলা একাডেমি সম্মাননা-২০১২, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোস্তফা কামাল স্মৃতি ফাউন্ডেশন পুরস্কার- ২০১৩, বাংলাদেশ পরিবেশ সাংবাদিক ফোরাম সম্মাননা- ২০১৪, আলপনা বৈঠক সম্মাননা ২০১৪, সুফি মোতাহার হোসেন সম্মাননা -২০১৫, কাব্যকথা সাহিত্য সম্মাননা-২০১৬, মাসিক ভিন্নমাত্রা সম্মাননা- ২০১৭ পেয়েছেন।
প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষা জীবন কেটেছে নিজ গ্রাম হিজুলিয়ায়। ঘিওর উপজেলার ফুলহারা আঞ্চলিক উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি ও দেবেন্দ্র কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেন। পরে প্রাইম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিএ ও বাংলায় এমএ পাস করেন। এরপর আইনবিদ্যায় স্নাতক এলএলবি, বিএড ও এমএড (ঢাবি) করেন। সৈয়দ রনো ধর্মশিক্ষায় আকর্ষিত হয়ে আরবি শিক্ষায় আলিম পাসও করেন। ২০১৩ সালে লোকসংস্কৃতি -তে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন।
জানা যায়, অনুশীলন সাহিত্য পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছিলেন সৈয়দ রনো, যা এখন অন্যধারা সাহিত্য সংসদ নামে চলছে। প্রায় দুই দশকধরে সাপ্তাহিক অন্যধারা পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। এছাড়া বর্তমানে জাতীয় দৈনিক আলোকিত প্রতিদিন পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক। একই সঙ্গে সলপ্ ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালকের দায়িত্বে রয়েছেন। স্বত্বাধিকারী – ফ্রেন্ডস ইন্টারন্যাশনাল এবং অন্যধারা পাবলিকেশন্স। নিজ এলাকায় শিক্ষা প্রসারের জন্য প্রতিষ্ঠা করেছেন হিজুলিয়া ভিআরএন হাইস্কুল। তিনি বর্তমানে এস কে কেমিক্যালস এগ্রো লিমিটেডের এমডি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

- Advertisement -
- Advertisement -