আজ বুধবার, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ ।   ২২ মে ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

হরিরামপুরের ধূলশুড়ায় পদ্মার ভাঙ্গন, হুমকির মুখে ৭ শত পরিবার

-Advertisement-

আরো খবর

- Advertisement -
- Advertisement -

মানিকগঞ্জ, প্রতিনিধি:  মানিকগঞ্জের হরিরামপুর উপজেলার ধূলশুড়া ইউনিয়নে পদ্মায় ভাঙ্গন শুরু হওয়ায় প্রায় ৭ শত পরিবারসহ হাটবাজার, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হুমকির মুখে পড়েছে। পদ্মায় নতুন জোয়ারের তীব্র ঢেউয়ের কারণে ভাঙ্গন শুরু হয়েছে বলে এলাকাবাসীর ধারনা।
এই ভাঙ্গন শুরু হতেই ধূলশুড়া বাজার ও প্রাথমিক বিদ্যালয়, ইব্রাহিমপুর ইশ্বরচন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয়, চর মুকুন্দিয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়, কমলাপুর ফোরকানিয়া মাদ্রাসা ও জামে মসজিদ, মন্দির এবং মেডিক্যাল সেন্টারসহ প্রায় ৭০০টি পরিবার ভিটেমাটি হারানোর হুমকির মুখে পড়েছে।
এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মো: জায়েদ খান জানান যে, আম্পানের ফলে সৃষ্ট জলোচ্ছাসে শুরু হওয়া নদীতে উত্তাল ঢেউয়ের কারনে ২০ টি পরিবার ইতিমধ্যে নদীগর্ভে বিলীন হয়ে অন্যের জায়গায় আশ্রয় নিয়েছেন। তিনি আরো জানান , হারুকান্দি ইউনিয়নের জিরো পয়েন্ট থেকে ধূলশুড়া পর্যন্ত বাঁধ নির্মাণ না থাকায় এ ভাঙ্গন শুরু হয়েছে। এভাবে ভাঙ্গন হতে থাকলে চলতি বছরেই বিলীন হয়ে যেতে পারে ধূলশুড়া ইউনিয়ন।
মহামারি করোনার প্রাদুর্ভাবে কর্মহীন হয়ে পড়া মানুষের মাথা গোঁজার জায়গাটুকু রক্ষায় ব্যবস্থা গ্রহণ না করলে হরিরামপুরের মানচিত্র থেকে এই ধূলশুড়া ইউনিয়ন হারিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।
এ ব্যপারে হরিরামপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো: বিল্লাল হোসেন জানান, এ ব্যাপারে তিনি অবহিত আছেন। তিনি আরো বলেন, এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা গ্রহণের জন্য কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। বর্ষা মৌসুমের আগেই ব্যবস্থা নেওয়া দরকার বলেও তিনি মনে করেন। অন্যথায় ক্ষয়-ক্ষতির পরিমাণ বেড়ে যেতে পারে।
এ ব্যাপারে মানিকগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো: মাঈন উদ্দিন জানান যে, ধূলশুড়া ইউনিয়নে চলতি বছর অনুন্নয়ন রাজস্ব বাজেটের আওতায় ৬০০০ বস্তা ডাম্পিং করা হয়েছে। যা প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল। জরুরী প্রয়োজনীয়তা দেখিয়ে ১ কোটি ৫০ লক্ষ টাকা বরাদ্দের জন্য পানি উন্নয়ন বোর্ডের কাছে আবেদন জানানো হয়েছে। খুব তাড়াতাড়িই ধুলশুড়া ইউনিয়নে বাঁধের কাজ শুরু করা হবে।

 

আলোকিত প্রতিদিন /৩১ মে ‘২০/এসএএইচ

- Advertisement -
- Advertisement -