আজ মঙ্গলবার, ১৪ Jul ২০২০, ০৯:১৩ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
বীরগঞ্জে পল্লীবন্ধুর ১ম মৃত্যু বার্ষিকীতে জাতীয় পার্টির শ্রদ্ধা নিবেদন স্বাধীনতার ইশতেহার পাঠক সাবেক মন্ত্রী শাহজাহান সিরাজ আর নেই চাঁপাইনবাবগঞ্জে সাবেক রাষ্ট্রপতি এরশাদের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত দিনাজপুর চক্ষু হাসপাতালে অজ্ঞাত কারণে সদস্যপদ স্থগিত,উন্মুক্তের দাবী জেলাবাসীর দেশে করোনায় আরও ৩১৬৩ জন আক্রান্ত, মৃত্যু ৩৩ এবং সুস্থ ৪৯১০ শার্শায় হ্যান্ডক্যাপ নিয়ে পলাতক মাদক ব্যবসায়ী ৭ঘণ্টা পর আটক অল্প বয়সেই চুল পাকছে ! কারি পাতা ব্যবহারেই সমাধান করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় ফ্রান্সে স্বাস্থ্যকর্মীদের বেতন বাড়লো ৮ বিলিয়ন ইউরো গ্রানাডাকে হারিয়ে লা লিগার শিরোপা থেকে ২ পয়েন্ট দূরে রিয়াল মাদ্রিদ সুন্দরগঞ্জে বিল থেকে শিশুর লাশ উদ্ধার
গাইবান্ধায় বন্যার পানি বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত, ব্যাপকভাবে নদী ভাঙ্গন

গাইবান্ধায় বন্যার পানি বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত, ব্যাপকভাবে নদী ভাঙ্গন

সংবাদদাতা,গাইবান্ধাঃ গাইবান্ধায় ব্রহ্মপুত্র, তিস্তা ও ঘাঘট নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্র জানিয়েছে, গত ২৪ ঘন্টায় সোমবার (২৯ জুন) দুপুর ৩টা পর্যন্ত ব্রহ্মপুত্রের পানি তিস্তামুখ ঘাট পয়েন্টে বিপদসীমার ৭৮ সে.মি. ও ঘাঘট নদীর পানি নতুন ব্রীজ পয়েন্টে বিপদসীমার ৫৩ সে.মি. উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়। ফলে জেলার সার্বিক বন্যা পরিস্থিতি আরও মারাত্মক অবনতি হওয়ায় নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হচ্ছে। ফলে পানিবন্দী হয়ে পড়ছে হাজার হাজার মানুষ। এছাড়া পানি বৃদ্ধির সাথে সাথে নদী ভাঙ্গনও ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। ভাঙ্গন কবলিত ও পানিবন্দী লোকজন তাদের বাড়ি ঘর ছেড়ে প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ও গরু-ছাগল নিয়ে নৌকায় করে আসবাবপত্র নিয়ে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ ও উঁচুস্থানে গিয়ে আশ্রয় নিচ্ছে। পানি বৃদ্ধির সাথে সাথে ফুলছড়ি ইউনিয়নের জামিরা ও নামাপাড়া গ্রামের ৫৭টি, এরেন্ডাবাড়ী ইউনিয়নের জিগাবাড়ি, আলগারচর, ভাটিয়াপাড়া, পূর্ব হরিচন্ডি, পাগলারচর, তিনথোপা গ্রামে নদী ভাঙ্গনের শিকার হয়ে ৮৫টি পরিবার তাদের বসতভিটা হারিয়েছে। এদিকে আকস্মিক বন্যায় বালাসীঘাটের দক্ষিণ পার্শ্বে ফুলছড়ি উপজেলার রসুলপুর ও কাইয়ারহাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় দুটি বন্যার পানিতে নিমজ্জিত হয়েছে। পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ মোখলেছুর রহমান জানান, পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় ব্রহ্মপুত্র বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ ও গাইবান্ধা শহর রক্ষা বাঁধের বিভিন্ন পয়েন্ট ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। তবে বাঁধ যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হয় সেজন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

 

আলোকিত প্রতিদিন/২৯ জুন’২০/এসএএইচ

 

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

All rights reserved. © Alokitoprotidin
এস কে. কেমিক্যালস এগ্রো লি: এর একটি মিডিয়া প্রতিষ্ঠান