আজ শনিবার, ০৬ Jun ২০২০, ০৩:৪১ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
কিস্তি আদায়ে জোর করলেই ব্যবস্থা : গাইবান্ধা ডিসি করোনায় আক্রান্তের শীর্ষ ২০-এ বাংলাদেশ! যুবলীগ চেয়ারম্যান ও সাধারণ সম্পাদকের পক্ষে দিনে ত্রাণ, রাতে সহযোগিতা করা হবে : জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি মধু মানিকগঞ্জে করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ:নতুন আক্রান্ত ৮৮,মোট ২৮৭ সরকারি কাজে বাধা : ডিমলায় চার পুলিশ আহত, আটক-২ চট্টগ্রামে আইসিইউ উন্মুক্ত করার দাবীতে কফিন মিছিল মাদারীপুরের কালকিনিতে ১০১পিস ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক কুয়াকাটায় স্বাস্থ্য-সুরক্ষা নিশ্চিতে হোটেল মালিক-কর্মচারীদের কর্মশালা অনুষ্ঠিত বগুড়ায় স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা মানিকগঞ্জে পরিবহন থেকে অবৈধভাবে টোল আদায়, গ্রেফতার ৪
ডিজিটাল আইনের মামলায় দিদারুল গ্রেফতার, সঙ্গে ইমনও

ডিজিটাল আইনের মামলায় দিদারুল গ্রেফতার, সঙ্গে ইমনও

::নিজস্ব প্রতিবেদক::
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে রমনা থানায় দায়ের হওয়া মামলায় আরও দুই জনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) সদস্যরা। গ্রেফতার দুই জন হলেন দিদারুল ইসলাম (৩৯) ও মিনহাজ মান্নান ইমন। বুধবার (৬ মে) তাদের বাড্ডা ও বনানী এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে দাবি করেছে র‌্যাব-৩। এর আগে দুর্যোগ সহায়তা মনিটরিং সেল ও ‘রাষ্ট্রচিন্তা’ নামের একটি সংগঠনের সদস্য দিদারুল ভূঁইয়াকে ‘র‌্যাব পরিচয়ে’ তুলে নেওয়ার অভিযোগ করে তার পরিবার। বুধবার দুপুরে পুরানা পল্টনে ‘রাষ্ট্রচিন্তা’র কার্যালয়ে এক অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ তুলে রাতের মধ্যে তাকে ফেরত দেওয়া দাবি জানানো হয়।
জানা যায়, দিদারুল ইসলাম ও মিনহাজ মান্নান ইমন রমনা থানা পুলিশের হেফাজতে রয়েছেন। এর আগে মঙ্গলবার (৫ মে) রাতে কার্টুনিস্ট আহমেদ কবির কিশোর ও মোস্তাক আহমেদকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।
র‌্যাব-৩ অপারেশন অফিসার এএসপি জাফর রাষ্ট্রচিন্তার সংগঠক দিদারুল ও ইমনের গ্রেফতারের তথ্য জানিয়েছেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে দায়ের করা মামলায় তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানান তিনি।
৫ মে রাতে রমনা থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ১১ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করেন র‌্যাব-৩ সিপিসি-১ ওয়ারেন্ট অফিসার মো. আবু বকর সিদ্দিক। মামলায় আরও ৫-৬ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করা হয়েছে।
এর আগে, মঙ্গলবার (৫ মে) রাতে র‌্যাব পরিচয়ে রাজধানীর উত্তর বাড্ডার নিজ অফিস থেকে রাষ্ট্রচিন্তা সংগঠনের অন্যতম সংগঠক দিদারুল ইসলামকে তুলে নেওয়ার অভিযোগ করেন তার পরিবারের সদস্যরা। সে সময় তার অফিসের দুটি সিপিইউ, একটি ল্যাপটপ এবং একটি মোবাইল ফোনও নিয়ে যাওয়া হয়। বুধবার (৬ মে) সকালে তাকে ফেরত দেওয়ার দাবিতে পরিবারের পক্ষ থেকে সংবাদ সম্মেলনও করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে তার স্ত্রী দিলশান আরা অপূর্ণা বলেন, “ইফতারের কিছুক্ষণ আগে ১১-১২ জন মানুষ দুটি মাইক্রোবাস নিয়ে এসে কম সময়ের মধ্যেই আমাদের কিছু বলার সুযোগ না দিয়েই দিদারকে দুটি কম্পিউটার, ল্যাপটপ ও সিসি ক্যামেরাসহ নিয়ে যায়। তারা বলে, ‘আমরা কিছু কথাবার্তা বলেই তাকে ছেড়ে দেবো।’ ইফতারের ঠিক দুই মিনিট আগে ওকে গাড়িতে তোলা হয়। আমার একটাই প্রশ্ন, ও কোনও অপরাধী না, তাহলে কেন ইফতারের সময় একজন নাগরিককে ইফতার করতে না দিয়ে এভাবে নিয়ে যাওয়া হবে?”
‘রাষ্ট্রচিন্তা’র দিদারুলকে ‌র‌্যাব পরিচয়ে তুলে নেওয়ার অভিযোগ, রাতের মধ্যে ফেরতের দাবি

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

All rights reserved. © Alokitoprotidin
Developed By Sbtechbd