আজ বুধবার, ০১ এপ্রিল ২০২০, ০৮:৪৫ পূর্বাহ্ন

পরীক্ষিত নেতা আহাম্মদ উল্লাহ মধুকে দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি পেতে চায় যুবসমাজ

পরীক্ষিত নেতা আহাম্মদ উল্লাহ মধুকে দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি পেতে চায় যুবসমাজ

জোসনা মেহেদী : বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ নেতা আহাম্মদ উল্লাহ মধু, যাকে নিয়ে গর্বিত সংগঠনের ঢাকা মহানগর দক্ষিণ। রাজপথে পরিক্ষিত বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক হিসেবেই পরিচিত তিনি। এই রাজনীতিক বিএনপি-জামাতের সময় অবর্ণনীয় নির্যাতনের পরও দলের জন্য জীবন বাজি রেখেছেন। পারিবারিক ভাবে স্বাধীনতার চেতনায় উদ্ভাসিত এমন নেতা হবেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি, এমনটাই দাবি নেতাকর্মীদের।

জানা যায়, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান মধু ১৯৮৪ সাল হইতে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত ছাত্রলীগের ওয়ার্ড পর্যায়ে দায়িত্ব পালন শুরু করেন। বর্তমানে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী যুবলীগের উর্ধ্বতন সহ-সভাপতি। যিনি জামায়াত শিবির বিএনপি, জোট সরকার ক্ষমতায় থাকাকালীন মিথ্যা মামলায় দীর্ঘদিন কারাবাস করেছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ১৯৯০ সালে স্বৈরাচারী বিরোধী আন্দোলনে ১৯৯১-৯৫ ও বিএনপি সরকার ২০০১ সাল হইতে ২০০৫ সাল পর্যন্ত কারাবাসে ও ডিটেনশনসহ  মিথ্যা মামলায় শিকার হয়েছিলেন আহমদ উল্লাহ মধু। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বুকে ধারণ করে শত নির্যাতিত হয়েও রাজপথে ছিলেন। বিএনপি সরকারের আমলে পুরানো ঢাকার নাছির আহম্মেদ পিন্টু এমপি টর্চার সেল থেকেও রেহাই পাননি তিনি।

১/১১ সময় ঢাকা মহানগরে যুবলীগের সহ-সভাপতি দায়িত্ব দায়িত্ব পালন করেন তিনি। সুযোগ সন্ধানীরা অনেকেই পালিয়ে গেলেও তিনি অনড় থেকেছেন। কোন প্রলোভনেই তিনি দল ত্যাগ করেননি।

জানা যায়, ১৯৭১সালে তারই পিতা ২৫ মার্চ কালো রাতে ইপিআরে পিলখানায় হামলার পাশাপাশি গণকটুলি বসবাস করার বাড়িটি হানাদার বাহিনীরা জ্বালিয়ে দেয়। ঐ সময় তার পিতা দেশের জন্য জীবন বাজি রেখে যুদ্ধ করেন। তার বড় ভাই শহীদুল্লাহ ২১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ছিলেন।  মেজ ভাই সফিকুর রহমান সফিক আশি দশকের ছাত্র নেতা ছিলেন।

নেতানেত্রীদের সঙ্গে কথা হলে তারা বলেন, ১৯৯০ সালে গণআন্দোলনে সময় নির্যাতিত হয়েও ঢাকা হাজারীবাগ থানা আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন মধু ভাই। বর্তমানে তিনি ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। এমন একজন ত্যাগী নেতাকেই আমরা দক্ষিণের সভাপতি পদে দেখতে চাই।’


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2020 Alokito Protidin
Developed By Rudra Amin