আপিলে প্রার্থিতা ফিরে পেলেন স্বতন্ত্র প্রার্থী নাজমুল হুদা

নিজস্ব প্রতিবেদক: মনোনয়নপত্র বাতিলের বিরুদ্ধে আপিল করে প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন ঢাকা-১৭ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা।প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদার নেতৃত্বাধীন কমিশনের আপিল শুনানির তৃতীয় দিন শনিবার বিকেলে তার প্রার্থিতা বৈধ ঘোষণা করা হয়। মনোনয়নের বৈধতা পাওয়ায় ইসিকে সাধুবাদ জানিয়েছেন নাজমুল হুদা।

মনোনয়নপত্রে তিনি কোন দলের প্রার্থী তা উল্লেখ না করায় নাজমুল হুদার প্রার্থিতা বাতিল করেছিলেন সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তা। এরপর ইসিতে আপিল করেন তিনি। আপিল শুনানিতে নাজমুল হুদা বলেন, ‘আমি স্বতন্ত্র প্রার্থী। এ জন্য আমি কোনো দলের কথা উল্লেখ করিনি। নির্বাচন কমিশন আপিলে আমার মনোনয়ন বৈধতা দেয়ায় তাদের সাধুবাদ জানাই।’

নির্বাচন সুষ্ঠু হবে কি হবে না- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে হুদা বলেন, ‘এ জন্য আরও অপেক্ষা করতে হবে। তবে ৫ জানুয়ারির মতো নির্বাচন আর দেশের মানুষ দেখতে চায় না।’ নির্বাচন কমিশনের কার্যকমে আপনি সন্তুষ্ট কি না-জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘অন্যের ব্যাপারে আমি কোনো মন্তব্য করব না। তবে আমার প্রার্থিতা ফিরিয়ে দেয়ায় কমিশনকে সাধুবাদ জানাই।’

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনে আপিলের শেষ দিন আজ  শনিবার (০৮ ডিসেম্বর)। এর আগে দুইদিনের শুনানিতে প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন ১৫৮ জন। বাতিল বা খারিজ হয়েছে ১৪১ জনের আপিল। দুইদিনে মোট ৩১০টি আপিল শুনানি নিষ্পত্তি করেছে ইসি। বাকিগুলো পেন্ডিং রয়েছে।সকাল ১০টায় নির্বাচন কমিশনের অস্থায়ী এজলাসে শেষ দিনের মতো এ শুনানি শুরু হয়। আজ মোট ২৩৩ জনের আপিল আবেদনের শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।

গত ২ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র বাছাইয়ে ২ হাজার ২৭৯টি মনোনয়নপত্র বৈধ ও ৭৮৬টি বাতিল ঘোষণা করেন সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তারা। রিটার্নি কর্মকর্তাদের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে সংক্ষুব্দ ব্যক্তিরা ৫৪৩টি আবেদন দায়ের করেন।

তফসিল অনুযায়ী আগামী ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। ৯ ডিসেম্বর প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ সময়। ১০ ডিসেম্বর প্রতীক বরাদ্দ দেয়ার পর থেকে প্রার্থী ও তার সমর্থকরা নির্বাচনী এলাকায় প্রচার-প্রচারণা চালাতে পারবেন।

আলোকিত প্রতিদিন/০৮ ডিসেম্বর/এমকে

ফেসবুক থেকে মন্তব্য করুন