জন্মদিনে সেকেন্ড হোমে রুনা লায়লা

বিনোদন ডেস্ক : উপমহাদেশের কিংবদন্তি কণ্ঠশিল্পীদের একজন রুনা লায়লা। বাংলাদেশ ছাড়াও দক্ষিণ এশিয়ার অন্যান্য দেশেও তিনি সুপরিচিত। বাংলা, উর্দু, পাঞ্জাবি, হিন্দি, সিন্ধি, গুজরাটি, বেলুচি, পশতু, ফার্সি, আরবি, মালয়, নেপালি, জাপানি, স্পেনীয়, ফরাসি, লাতিন ও ইংরেজিসহ ১৮টি ভাষায় ১০ হাজারেরও বেশি গান গেয়েছেন এই শিল্পী। বাংলা চলচ্চিত্রের পাশাপাশি তিনি কণ্ঠ দিয়েছেন ভারত এবং পাকিস্তানের চলচ্চিত্রেও।

আজ সেই জীবন্ত কিংবদন্তি রুনা লায়লার জন্মদিন। ৬৫ পেরিয়ে ৬৬ বছরে পা দিলেন তিনি। শুভ জন্মদিন। ১৯৫২ সালের ১৭ নভেম্বর রুনা লায়লা সিলেটে জন্মগ্রহণ করেছিলেন। তবে শিল্পীর ৬৬তম জন্মদিনে তাকে মিস করছেন বাংলাদেশি ভক্তরা। কেননা জন্মদিন উদযাপন করতে শুক্রবার তিনি উড়ে গেছেন কলকাতা শহরে।রুনা লায়লাকে এবারের জন্মদিনে তাঁর স্বামী বাংলাদেশের বরেণ্য চিত্রনায়ক আলমগীর ট্রিট দিচ্ছেন।

কলকাতায় নিজেদের মতো করে জন্মদিন উদযাপন শেষে ১৯ নভেম্বর ঢাকায় ফিরবেন তাঁরা। চলচ্চিত্র ও গানের জগতে আলমগীর ও রুনা লায়লার ব্যস্ততা এখনো আগের মতোই। জন্মদিনে একেবারে নিজেদের মতো করে কাটাতে চান বলে পাশের দেশ ভারতের কলকাতাকে পছন্দ করেছেন রুনা। উপমহাদেশের প্রখ্যাত এই শিল্পী বলেন, ‘কলকাতা আমার খুব প্রাণের একটা শহর। ওখানে গেলে মনে হয় না নিজের বাড়ির বাইরে কোথাও আছি। এটাকে আমার সেকেন্ড হোম মনে হয়।

১৯৫২ সালের ১৭ নভেম্বর জন্মগ্রহণ করেন সংগীতশিল্পী রুনা লায়লা। তাঁর বাবার নাম এমদাদ আলী ও মায়ের নাম আমিনা আলী। বাংলাদেশের সংগীতের কিংবদন্তি এই শিল্পী চলচ্চিত্র, পপ ও আধুনিক সংগীতের জন্য বিখ্যাত। দেশের বাইরে গজল গায়িকা হিসেবেও দক্ষিণ এশিয়ার অন্যান্য দেশে তাঁর সুনাম আছে। এ ছাড়া ভারত ও পাকিস্তানের অনেক চলচ্চিত্রের গানেও তিনি কণ্ঠ দিয়েছেন।

অালোকিত প্রতিদিন/১৭ নভেম্বর/শারমিন মৌ

ফেসবুক থেকে মন্তব্য করুন