একটা ঘটনার জন্য ছাত্ররাজনীতি বন্ধ করা যৌক্তিক নয়: প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘রাজনীতি একটা প্রশিক্ষণের বিষয়, এটা ছাত্ররাজনীতি থেকে তৈরি হয়। একটা ঘটনার জন্য ছাত্ররাজনীতি বন্ধ করা যৌক্তিক নয়। বুয়েট চাইলে সেখানে ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ করতে পারে। বুধবার বিকালে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে ভারত ও যুক্তরাষ্ট্র সফর পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ সব কথা বলেন। বুয়েটের শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যার পর ছাত্ররাজনীতি বন্ধ করার দাবি উঠেছে- এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করলে তিনি বলেন, আমি নিজেও ছাত্ররাজনীতি করে এসেছি। তাই আমি দেশের কোথায় কী হচ্ছে, আমি এখান থেকেই সব দেখাশোনা করছি। কারণ ছাত্ররাজনীতি করে আসলেই রাজনীতি শেখা যায়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, মাথা থাকলে মাথাব্যথা তো হবেই। যারা উড়ে এসে বসে, তাদের দেশের চিন্তা থাকে না। ছাত্ররাজনীতি থেকেই ধীরে ধীরে চরিত্র গঠন হয়। আদর্শ গড়ে ওঠে। দক্ষ নেতৃত্ব উঠে এসেছে ছাত্ররাজনীতি থেকেই। তিনি বলেন, এখন যদি বুয়েট ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ করতে চায় তাহলে তারা করতে পারে, আমরা তাতে কোনো বাঁধা দেব না। এ সময় প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, দেশের যত পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় আছে, সবগুলোতে সরকারের প্রচুর অর্থ ব্যয় হয়। একটা ডাক্তার, একটা ইঞ্জিনিয়ার তৈরি করতে প্রচুর অর্থ ব্যয় করা হয়। কাজেই হলে থেকে মাস্তানি করা চলবে না। সংবাদ সম্মেলনে দেশের প্রতিটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও হলে তল্লাশি চালানোর নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আলোকিত প্রতিদিন/অক্টোবর/০৯/এসএম

ফেসবুক থেকে মন্তব্য করুন