রাজধানীর মোহাম্মদপুর থানা এলাকায় লাইসেন্স ব্যতীত ও মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ রাখার দায়ে দুইটি ক্লিনিককে ৯ লক্ষ টাকা জরিমানাসহ দুইজনকে দুই জনকে কারাদন্ড প্রদান করেছে র‌্যাব-২ এর ভ্রাম্যমান আদালত।

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় ভুয়া চিকিৎসক/ক্লিনিক/ মানসিক ও মাদকাসক্ত নিরাময় কেন্দ্র /ডায়াগনষ্টিকের রমরমা ব্যবসা চলছে। এগুলো দমনে র‌্যাবের অভিযান দেশের সকল মহলে প্রশংসিত হয়েছে। সাম্প্রতিককালে কিছু অসাধু ব্যক্তি অতি মুনাফা লাভের আসায় বিভিন্ন ক্লিনিক/ফার্মেসী/মানসিক ও মাদকাসক্ত নিরাময় কেন্দ্র/ডায়গনষ্টিক সেন্টারে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক পরিচয় দিয়ে চিকিৎসার নামে সাধারণ মানুষকে প্রতারিত করে আসছে। এ ছাড়া মানসিক ও মাদকাসক্ত হাসপাতালের নামে রোগীদের উপর অমানুসিক নির্যাতন এবং প্রয়োজনের তুলনায় মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্রে কম হওয়ার ফলে সরকারের নিয়ম নীতি না মেনে মাদকাসক্তদের চিকিৎসা সেবার নামে অপরাধমূলক কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। এধরনের ভূঁয়া চিকিৎসক অবৈধ ক্লিনিক/ফার্মেসী/মানসিক ও মাদকাসক্ত নিরাময় কেন্দ্র/ডায়াগনষ্টিক সেন্টার বন্ধ করার লক্ষ্যে র‌্যাব-২ একটি বিশেষ দল গঠন করে গোয়েন্দা কার্যক্রম অব্যাহত রাখে।

 এরই ধারাবাহিকতায় গত ১১/০৯/২০১৯ খ্রিঃ তারিখ আনুমানিক ১০.০০ ঘটিকা হতে ১৯.০০ ঘটিকা পযর্ন্ত র‌্যাব-২ এর উদ্যোগে র‌্যাব সদর দপ্তরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জনাব মোঃ গাউছুল আজম ও মোহাম্মদ আনিছুর রহমান এর পরিচালনায় এবং স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এর সহায়তায় রাজধানীর মোহাম্মদপুর থানা এলাকায় নিউ মেডিকম মেডিকেল সার্ভিসেস এবং ইউরো-বাংলা হার্ট হসপিটালে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়। ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনাকালে দেখা যায় যে, নিউ মেডিকম মেডিকেল সার্ভিসেস লাইসেন্স ব্যতীত ক্লিনিক পরিচালানা করা সহ বিভিন্ন রোগীদের সাথে প্রতারণা করার দায়ে উক্ত প্রতিষ্ঠানের মালিককে ৫,০০,০০০/- টাকা জরিমানা সহ ০১(এক) জনকে ০১ (এক) বছরের কারাদÐ প্রদান করেন ও ইউরো-বাংলা হার্ট হসপিটালে ওটি তে সার্জিক্যাল আইটেস মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ, অনুমোদনহীন ঔষধ/সার্জিক্যাল সামগ্রী ব্যবহার করা দায়ে উক্ত প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজারকে ২,০০,০০০/- লক্ষ টাকা, ভারপ্রাপ্ত ওটি ইনচার্জকে ২,০০,০০০/- টাকা জরিমানা এবং ক্যাথ ল্যাব ইনর্চাজকে ২(দুই) মাসের কারাদন্ড প্রদান করেছে র‌্যাব-২ এর ভ্রাম্যমান আদালত। ভবিষ্যতেও র‌্যাব-২ এ ধরনের অভিযান অব্যাহত রাখবে ।

আলোকিত প্রতিদিন/সেপ্টেম্বর/১২/এসএম

ফেসবুক থেকে মন্তব্য করুন