বগুড়ায় দলবদ্ধ ধর্ষণের শিকার এক সন্তানের জননী

নিজস্ব প্রতিবেদক: বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার সান্তাহারে দলবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হয়েছেন স্বামী পরিত্যক্তা এক সন্তনের জননী। তিনি আদমদীঘির সান্দিড়া গ্রামের বাসিন্দা ও শখের পলি­র নামের বিনোদন কেন্দ্রের মুদি দোকানি ওই নারী। রবিবার রাতে এই ঘটনার পর সোমবার বিকেলে এই ব্যাপারে আদমদীঘি থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। স্থানীয় সুত্রে জানাযায় ঘটনার শিকার ওই নারী রবিবার সন্ধ্যা ৭টার পর তার ভাইয়ের সাথে সান্তাহার পৌর এলাকার সাইলো সড়ক দিয়ে তিয়রপাড়া সেতু এলাকায় বেড়াতে যান। পথিমধ্যে পৌর এলাকার জুয়েল, সজিব, পান্না, অনিক, টুটুলসহ কয়েকজন বখাটে তাদের পথরোধ করে প্রথমে মোবাইল ফোন ও ভ্যানিটি ব্যাগ ছিনিয়ে নেয়।

এরপর ওই নারীর ভাইকে মারপিট করে এবং ওই নারীর মুখ বেঁধে বিলেরপাড়ে নিয়ে গিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। পরে এলাকাবাসী রাত সাড়ে ৯টার দিকে অসুস্থ অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে আদমদীঘি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে নওগাঁ সদর হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়। আদমদীঘি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ জালাল উদ্দিন এ প্রতিবেক-কে বলেন, থানায় ধর্ষন মামলা দায়ের হয়েছে। জুয়েলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বাঁকিদের গ্রেপ্তার অভিযান অব্যাহত আছে।

আলোকিত প্রতিদিন/সেপ্টেম্বর/১০/এসএম

ফেসবুক থেকে মন্তব্য করুন