প্রজাপতি বাস কেড়ে নিল স্কুলছাত্রের প্রাণ

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর পল্লবীতে বাসের চাপায় গুরুতর আহত স্কুলছাত্র মো. সাব্বির (১৩) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছে। আজ রোববার ভোর ৪টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। গতকাল শনিবার প্রজাপতি পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস মিরপুরের পল্লবীতে তাকে চাপা দেয়।

পল্লবী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) শামীম হোসেন জানান, পল্লবীর ২১ নম্বর রোডের চার রাস্তার মোড়ে শনিবার বিকেলে প্রজাপতি পরিবহনের যাত্রীবাহী একটি বাস সাব্বিরকে চাপা দেয়। তাৎক্ষণিকভাবে সাব্বিরকে পঙ্গু হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়, সেখান থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আজ রোববার ভোর ৪টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় পুলিশ বাস ও বাসচালককে আটক করে। ময়নাতদন্ত শেষে রোববার সকালে মৃতদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। নিহতের মামা সুমন নাকিব বলেন, ‘শনিবার বিকেল ৫টায় স্কুল থেকে বাসায় ফেরার পথে প্রজাপতি পরিবহনের যাত্রীবাহী বাস সাব্বিরকে চাপা দেয়। পরে আহত অবস্থায় তাকে পঙ্গু হাসপাতালে নিয়ে যাই। সেখান থেকে সন্ধায় ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে আসলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ ভোর ৪টায় তার মৃত্যু হয়।

মৃত সাব্বির গাজীপুর জেলার কাপাসিয়া উপজেলার বিরকুন্জলি গ্রামের গাড়িচালক মোহাম্মদ জসিমের ছেলে। বর্তমানে তারা মিরপুরের একটি ভাড়া বাসায় থাকতেন। এক ভাই এক বোনের মধ্যে ছিল সাব্বির বড়। সে নাহার একাডেমি স্কুলের সপ্তম শ্রেণীর ছাত্র ছিল।

 

 

আলোকিত প্রতিদিন/আগস্ট/২/এসএফ

ফেসবুক থেকে মন্তব্য করুন