হঠাৎ বিপাকে সানি দেওল, হারাতে পারেন সাংসদ পদ

বিনোদন ডেস্ক: বলিউডে অভিনয়ের পাশাপাশি রাজনীতির আঙিনায় নেমেই জয়ের স্বাদ পেয়েছিলেন সানি দেওল। ভারতের গুরদাসপুর লোকসভা আসন থেকে বিজেপির টিকিটে জয়ী হন এ অভিনেতা।

কিন্তু হঠাৎ করে বিপাকে পড়েছেন বলিউড অভিনেতা এবং সাংসদ সানি দেওল। লোকসভার সদস্যপদেই এবার সমস্যায় পড়তে চলেছেন সানি, এমনটাই জানা যাচ্ছে।

সানির বিরুদ্ধে অভিযোগ, নির্বাচনী প্রচারে মাত্রাতিরিক্ত খরচ করেছেন তিনি। এর জেরে সংসদ সদস্য পদ হারাতে পারেন তিনি।
নির্বাচনী প্রচারে খরচের মাত্রা বেধে দেওয়া হয়েছিল ৭০ লাখ। কিন্তু সানির প্রচারে সেই মাত্রা ছাড়িয়ে ব্যয় হয় ৮৬ লাখ টাকা।

ভারত জুড়ে মোদির জয়-জয়কার হলেও গেরুয়া শিবিরের সানি পড়েছেন জোর বিপাকে। কারণ, আশঙ্কায় তার সাংসদ পদ। ইতোমধ্যে বলিউড অভিনেতা তথা সাংসদকে নোটিশ পাঠানো হয়েছে। অভিযোগ প্রমাণিত হলে কড়া শাস্তির মুখে পড়তে পারেন সানি। এমনটাই মনে করছেন রাজনৈতিক মহলের একাংশ। এমনকি শাস্তিস্বরূপ খোয়াতে পারেন তার সাংসদ পদও।

এই মর্মে সম্প্রতি একাধিক অভিযোগ জমা পড়েছে নির্বাচন কমিশনের কাছে। তার পরই অভিনেতাকে নোটিশ পাঠানো হয়েছে। নির্বাচনী খরচ সংক্রান্ত নিয়মাবলি লঙ্ঘন করলে বিজয়ী প্রার্থীর সাংসদ পদ পর্যন্ত বাতিল করতে পারে কমিশন।

প্রসঙ্গত, নির্বাচনের আগে প্রায় অন্তিম মুহূর্তে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন সানি দেওল। পাঞ্জাব কংগ্রেসের প্রধান সুনীল জাখরকে ৮০ হাজার ভোটে হারিয়ে গুরুদাসপুর থেকে জয়লাভ করেন তিনি। ১৮ জুন সাংসদ হিসেবে শপথ নেন সানি।

আলোকিত প্রতিদিন/২০ জুন/আরএ

ফেসবুক থেকে মন্তব্য করুন