উল্টে-পাল্টে দিন, মোদি সরকার ফেলে দিন: মমতা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী তৃণমূল কংগ্রেসের নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, বাংলার মানুষ এবার নরেন্দ্র মোদির হিটলারি শাসন থেকে মুক্তি চায়। বাংলার মানুষ এক মুহূর্তের জন্য মোদির সরকার দেখতে চায় না, তারা দেশ থেকে মোদিকে হটাতে চায়। তাই এবার মানুষ জোট বেঁধেছে মোদিকে হটানোর প্রত্যয় নিয়ে। এবার মোদিকে বিদায় নিতে হবে ভারতের পবিত্র মাটি থেকে।আজ বুধবার দুপুরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মুর্শিদাবাদ জেলার কান্দিতে তৃণমূল আয়োজিত এক নির্বাচনী সভায় যোগ দিয়ে এ কথা বলেছেন।
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, তৃণমূলকে বাদ দিয়ে এবার আর ভারতে সরকার হচ্ছে না। সরকার গড়বে বাংলা আর উত্তর প্রদেশ। এই দুই রাজ্যই এবার সরকার গড়ার কারিগর হবে। আর তার প্রধান হবে তৃণমূল কংগ্রেস। তিনি বলেন, ‘বাংলা, ওডিশা আর দিল্লিতে তো মোদি এবার পাবে জিরো। তাই কীভাবে তিনি হবেন হিরো?’ এরপরই মমতা জোরের সঙ্গে বলেন, ‘এবার উল্টে দিন, পাল্টে দিন, মোদি সরকার ফেলে দিন। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বলেন, ‘১৯৯৮ সালে আমি কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূল দল গড়ি। তখন কংগ্রেসের নেতারা দলের পতাকা বিক্রি করে দিয়েছিল সিপিএমের হাতে। তখন সিপিএমকে পালিশ করত কংগ্রেস। তাই তখন কংগ্রেস ছেড়ে নতুন দল গঠন করি।’
মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বিজেপির বন্ধু সেই কংগ্রেস আজ আরএসএসের সাহায্য নিয়ে মুর্শিদাবাদ, বহরমপুর আর জঙ্গিপুরে প্রচারে নেমেছে। আমরা এবার মুর্শিদাবাদ জেলার তিনটি আসন থেকে কংগ্রেস বিজেপি ও সিপিএমকে হটিয়ে তৃণমূলের পতাকা উড়াবই। মানুষ এবার তৃণমূলের দিকে এসেছে। জয় তৃণমূলের হবেই।’ মমতা প্রশ্ন করেন, ‘সারদা, নারদ কেলেঙ্কারি মামলায় কেন কংগ্রেস বা সিপিএমের একজন নেতাকেও গ্রেপ্তার করা হয়নি? অথচ আমরাই সারদার কর্ণধারকে গ্রেপ্তার করেছি। তাই এবার সময় এসেছে ভারতে মোদিরাজকে হটিয়ে জনগণের সরকার গঠনের। বিজেপি, কংগ্রেস ও সিপিএমকে ভোট না দেওয়ার আহ্বান জানিয়ে মমতা বলেন, ‘এবার আমরা এই রাজ্যের ৪২ আসনেই জিতছি। তাই আপনারা এবার তৃণমূলের জোড়াফুল প্রতীকে ভোট দিয়ে দিল্লি সরকার গড়তে তৃণমূলকে শক্তিশালী করুন। কারণ, আজ এই বাংলায় সিপিএম-কংগ্রেস-বিজেপি এক হয়ে গেছে। তাদের বিরুদ্ধে গর্জে উঠুন। মোদিকে হটানোর জন্য জোর আওয়াজ তুলুন, “মোদি হটাও, দেশ বাঁচাও”।

 

আলোকিত প্রতিদিন/১৮এপ্রিল/এমএ

ফেসবুক থেকে মন্তব্য করুন