গাইবান্ধায় শ্বশুর বাড়ী থেকে যুবকের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার

গাইবান্ধা প্রতিনিধি: গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলায় শ্বশুর বাড়ী থেকে মনিরুল ইসলাম(২৫) নামে এক যুবকের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গত মঙ্গলবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে পলাশবাড়ী উপজেলার কিশোরগঞ্জ ইউনিয়নের উত্তরঝাপর গ্রাম থেকে গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত মনিরুল ইসলাম একই ইউনিয়নের কাশিয়াবাড়ী গ্রামের আসাদুল ইসলামের পুত্র। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মনিরুল ইসলামের স্ত্রী তন্নী বেগম ও শাশুড়ি জাহানারা বেগমকে আটক করা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে শ্বশুর তারা মিয়া পলাতক রয়েছে।

পলাশবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বলেন ৪/৫ মাস আগে তন্নী বেগমের সঙ্গে মনিরুল ইসলামের বিয়ে হয়। ঘটনার রাতে মনিরুল ইসলাম শ্বশুর বাড়ীতে অবস্থান করছিলেন। রাতে তারা মিয়া বাড়ীর সামনে মনিরুল ইসলামের গলাকাটা মরদেহ দেখে স্থানীয়রা পুলিমকে সংবাদ দেয়। সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে মরদেহ উদ্ধার করে গাইবান্ধা সদর হাসপাতালের মগে ময়নাতদন্তের জন্য প্রেরণ করে।

আলোকিত প্রতিদিন/১৭ এপ্রিল/আরএ

ফেসবুক থেকে মন্তব্য করুন