চলছে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা

বাংলাদেশের দুই হাজার ৫৭৯টি কেন্দ্রে একযোগে শুরু হয়েছে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা। যাতে অংশ নিচ্ছে ১৩ লাখ ৫১ হাজার ৫০৫ জন শিক্ষার্থী।

সোমবার সকাল ১০টায় শুরু হয়েছে পরীক্ষা। চলবে বেলা একটা পর্যন্ত। প্রথম দিন এইচএসসিতে বাংলা (আবশ্যিক) প্রথম পত্র, বাংলা (আবশ্যিক) প্রথম পত্র (ডিআইবিএস) এবং আলিমে কুরআন মাজিদ পরীক্ষা হচ্ছে।ৃ

দেশের ৯ হাজার ৮১টি প্রতিষ্ঠান থেকে এবারের পরীক্ষায় যারা অংশ নিচ্ছেন তাদের মধ্যে ছাত্র ৬ লাখ ৬৪ হাজার ৪৯৬ জন এবং ছাত্রী ৬ লাখ ৮৭ হাজার ৯ জন।

গত বছর এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় ১৩ লাখ ১১ হাজার ৪৫৭ জন শিক্ষার্থী অংশ নিয়েছিলেন। এই হিসাবে এবার পরীক্ষার্থী বেড়েছে ৪০ হাজার ৪৮ জন। গতবারের থেকে এবার ১১৮টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং ৩৮টি কেন্দ্র বেড়েছে।

তত্ত্বীয় পরীক্ষা শেষ হলে ৬ মে’র পর ব্যবহারিক পরীক্ষা শুরু হবে। রোববার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানিয়েছিলেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

এবার ৮টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের আওতায় এইচএসসি পরীক্ষায় মোট অংশ নিচ্ছে ১১ লাখ ৪৭ হাজার ৭৪৭জন। এর মধ্যে ছাত্র ৫ লাখ ৭৩ হাজার ৮১২ জন এবং ছাত্রী ৫ লাখ ৬৪ হাজার ৯৩৫ জন। এই পরীক্ষায় কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীন এসএসসি ভোকেশনাল পরীক্ষায় ১ লাখ ২৪ হাজার ২৬৫ জন এবং মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের অধীন আলিম পরীক্ষায় ৭৮ হাজার ৪৫১ জন অংশ নিচ্ছে। দেশের বাইরে এবার বিদেশের আটটি কেন্দ্রে ২৭৫ শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে।

এবারও পরীক্ষা শুরুর ৩০ মিনিট আগে অবশ্যই পরীক্ষার্থীদের কেন্দ্রে প্রবেশ করতে হবে। অনিবার্য কারণে কোনো পরীক্ষার্থী এরপর কেন্দ্রে এলে রেজিস্ট্রারে নাম, ক্রমিক নম্বর ও বিলম্বের কারণ উল্লেখ করতে হবে। বিলম্বে আসা পরীক্ষার্থীদের তালিকা প্রতিদিন কেন্দ্র সচিব সংশ্লিষ্ট বোর্ডকে অবহিত করবে। প্রথমে অনুষ্ঠিত হবে প্রশ্নপত্রের বহুনির্বাচনী অংশের পরীক্ষা। এরপর সৃজনশীল বা রচনামূলক অংশের পরীক্ষা হবে। সকালের পরীক্ষা ১০টা থেকে বেলা একটা ও বিকালের পরীক্ষা দুটা থেকে পাঁচটা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে।

আলোকিত প্রতিদিন/০১ এপ্রিল/আরএইচ

ফেসবুক থেকে মন্তব্য করুন