ইতালিকে রুখে দিয়ে নেশন্স লিগের সেমিফাইনালে পর্তুগাল

ক্রীড়া ডেস্ক: ইতালির সাথে সান সিরোতে গোলশূন্য ড্র করে প্রথম দল হিসেবে নেশন্স লিগের সেমিফাইনাল নিশ্চিত করেছে পর্তুগাল।

তারকা ফরোয়ার্ড ক্রিস্টিয়ানো রোনাল্ডোর অনুপস্থিতিতেও এক ম্যাচ হাতে রেখে গ্রুপ-এ’র শীর্ষ দল হিসেবে শেষ চার নিশ্চিত করেছে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নরা। আর এতে করে ইতালি টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নিয়েছে। এই গ্রুপ থেকে তৃতীয় দল হিসেবে পোল্যান্ড লিগ-বি’তে রেলিগেটেড হয়ে গেছে।

শেষ চারে উঠতে হলে রবার্তো মানচিনির ইতালির এই ম্যাচে অবশ্যই জয়ী হতে হতো। কিন্তু সান সিরোতে ৭৩ হাজার ঘরের সমর্থকদের সামনে পর্তুগালকে পরাস্ত করতে ব্যর্থ হয়েছে আজ্জুরিরা। গোলশূন্য ড্র করে তারা যেন বছর খানেক আগে সুইডেনের বিপক্ষে প্লে-অফ ম্যাচেরই পুনরাবৃত্তি করলো। ঐ ম্যাচে সুইডেনের কাছে পরাস্ত হয়ে ইতালির বিশ্বকাপে খেলার স্বপ্ন শেষ হয়ে গিয়েছিল।

পর্তুগিজ কোচ ফার্নান্দো সান্তোস বলেছেন, ‘এই টুর্নামেন্টের শেষ চারে পৌঁছানোটা সত্যিই স্বস্তিদায়ক। কিন্তু এই ম্যাচটা আসলেই কঠিন ছিল। বিশেষ করে প্রথমার্ধে আমি বুঝতে পেরেছি বেশ কঠিন সময় আমাদের পার করতে হচ্ছে।’

মঙ্গলবার গ্রুপের শেষ ম্যাচে পোল্যান্ডকে আতিথ্য দিবে পর্তুগাল। যদিও গ্রুপের ভাগ্য নির্ধারিত হয়ে যাওয়ায় ম্যাচটি কেবলই আনুষ্ঠানিকতায় পরিণত হয়েছে। কিন্তু তারপরেও সান্তোস বলেছেন, পোলিশদের বিপক্ষে শেষ ম্যাচটা গুরুত্বপূর্ণ। কারন আমাদের সমর্থকদের সামনে আমরা খেলতে নামবো, যারা সবসময়ই আমাদের সমর্থন দিয়ে যাচ্ছে। আমাদের অবশ্যই এই ম্যাচে জয়ী হতে হবে।

অক্টোবরে লিসবনে সান্তোসের দল প্রথম ম্যাচে ইতালিকে ১-০ গোলে পরাজিত করেছিল। কালকের ম্যাচে প্রথম থেকে অবশ্য স্বাগতিকদের আধিপত্য ছিল। লোরেনজে ইনসিগনে ও সিরো ইমোবিলের শট আটকাতে কষ্ট করতে হয়েছে পর্তুগীজ গোলরক্ষক রুই প্যাট্রিসিওকে। বিরতির পর পর্তুগাল কিছুটা আক্রমনাত্মক হয়ে উঠে। উইলিয়ান কারভালহোকে ইতালি গোলরক্ষক গিয়ানলুইগি ডোনারুমা আটকে দেবার পর বদলী খেলোয়াড় হোয়া মারিও বারের উপর দিয়ে বল বাইরে পাঠিয়ে দেন। এই ম্যাচের মাধ্যমে ইতালিয়ান অধিনায়ক গিওর্গিও চিয়েলিনি ইতালির হয়ে শততম ম্যাচ খেলার কৃতিত্ব অর্জন করেন। ফিনল্যান্ডের বিপক্ষে ঠিক এক বছর আগে এই দিনেই ইতালির জাতীয় দলের হয়ে তার অভিষেক হয়েছিল।

আগামী মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে একটি আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে মাঠে নামবে ইতালি।

আলোকিত প্রতিদিন/১৮ নভেম্বর/এমকে

ফেসবুক থেকে মন্তব্য করুন