৫ দফা দাবিতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সড়ক অবরোধে কওমী ছাত্ররা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সংবাদদাতা: শুক্রবার তাবলিগের সঙ্গে মারামারির জের ধরে কওমী মাদ্রাসার ছাত্ররা সদর সার্কেল অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রেজাউল কবীরের অপসারণসহ ৫ দফা দাবিতে শনিবার ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের প্রধান সড়ক ৩ ঘন্টা অবরোধ করেছেন।

এছাড়া ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সাদপন্থী নেতা মাওলানা আনিছুর রহমানকে গ্রেফতার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া মার্কাজকে সাদ অনুসারী মুক্ত করা, শুক্রবারের হামলার সঙ্গে জড়িতদের বিচার এবং আহতদের ক্ষতিপূরণও দাবি করেন কওমী ছাত্ররা।

শনিবার বেলা সাড়ে ১১টা থেকে জেলা শহরের টিএ রোডের কান্দিপাড়া মাদ্রাসা মোড়ে অবস্থান নিয়ে দাবি আদায়ের লক্ষ্যে বিভিন্ন শ্লোগান দেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জামিয়া ইসলামিয়া ইউনুছিয়া মাদ্রাসার ছাত্ররা। পরে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করেন বিক্ষোভকারীরা। এতে করে শহরের প্রধান সড়ক দিয়ে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পরে দুপুর আড়াইটার দিকে তারা মিছিল করে প্রেসক্লাবের সামনে গিয়ে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ শেষে অবরোধ প্রত্যাহার করেন।

উল্লেখ্য, দীর্ঘদিন ধরে কওমি মাদ্রাসা ও মাওলানা সাদ সমর্থকদের নানা বিষয় নিয়ে মতবিরোধ চলছিল। শুক্রবার বিকালে বিরাসার এলাকার মার্কস মসজিদের ঢুকা নিয়ে এক পক্ষ আরেক পক্ষকে বাধা দেয়। এ ঘটনায় উত্তাপ ছড়িয়ে পড়ে উভয়পক্ষের মধ্যে। এরপর সন্ধ্যায় উভয় পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। এতে অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন। খবর পেয়ে সদর মডেল থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

আলোকিত প্রতিদিন/১০নভেম্বর/আরএইচ

ফেসবুক থেকে মন্তব্য করুন