গোবিন্দগঞ্জে নিখোঁজ কিশোরের মরদেহ উদ্ধার

গাইবান্ধা সংবাদদাতা: গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে নিখোঁজের একদিন পর নিহাদ বাবু ওরফে কালু (১৩) নামে এক কিশোরের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার উপজেলার মহিমাগঞ্জ ইউনিয়নের বোচাদহ গ্রামের একটি নালা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহাদ বাবু ওই গ্রামের জাহিদুল ইসলামের ছেলে। সে মহিমাগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র।

নিহাদ বাবুর পরিবার জানায়, বুধবার সন্ধ্যায় নিজ বাড়ি থেকে বের হয়ে মহিমাগঞ্জ বাজারে যায় সে। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তাকে পাওয়া যায়নি। বৃহস্পতিবার বাড়ির কাছেই একটি নালার ধারে নিহাদের মরদেহ পড়ে থাকতে দেখতে পায় স্থানীয়রা। খবর পেয়ে পরিবারের লোকজন গিয়ে মরদেহ শনাক্ত করে পুলিশে খবর দেয়।

গোবিন্দগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা একেএম মেহেদী হাসান বলেন, ‘লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাইবান্ধা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। নিহাদ বাবুর মাথা ও দুই পায়ে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এছাড়া তার গলায় রশি দিয়ে শ্বাসরোধ করার চিহ্ন রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, শরীরে আঘাতের পর তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করে লাশ ফেলে পালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। কেন কী কারণে তাকে হত্যা করা হয়েছে তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।’ হত্যাকারীদের চিহ্নিত করে গ্রেফতারে অভিযান চলছে বলেও জানান তিনি।

আলোকিত প্রতিদিন/০৯ নভেম্বর/আরএইচ

ফেসবুক থেকে মন্তব্য করুন