আশুলিয়ায় লেগুনা চালককে পিটিয়ে হত্যা

আশুলিয়ায় গাড়ী পার্কিং করে রাখাকে কেন্দ্র করে আসলাম (৪৫) নামের এক লেগুনা চালককে পিটিয়ে হত্যা করেছে রডের দোকানের মালিক। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে আশুলিয়ার নিরিবিলি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত লেগুনা চালক মুন্সিগঞ্জের শ্রীনগর এলাকার রশিদ পাঠানের ছেলে ও আশুলিয়ার নিরিবিলি এলাকায় পরিবারের সাথে থেকে লেগুনা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতেন। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, আশুলিয়ার নিরিবিলি এলাকার ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের পাশে চালক প্রতিদিন তার লেগুনা পার্কিং করে রেখে বাড়িতে চলে যায়। তবে গত শনিবার রাতে নিরিবিলি বাসস্ট্যান্ড এলাকায় মেসার্স জুয়েল স্টীল এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং নামের একটি রডের দোকানে সামনে গাড়ী রেখে দেয়। এতে করে পরের দিন সকালে দোকান থেকে মালামাল বের করতে বিড়ম্বনার মধ্যে পড়তে হয়।

এদিকে লেগুনা চালকের খোজ করে না পেয়ে মঙ্গলবার সকালে তাকে ডেকে নিয়ে আসা হয়। পরে এ নিয়ে বাক বিতর্কতায় এক পর্যায়ে স্টীল দোকানদার জাকির হোসেন তাকে রড দিয়ে পিটিয়ে গুরুত্বর আহত করে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় চালককে উদ্ধার করে পাশের গণ্যস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড হাসপাতালে নিয়ে গেলে কতর্ব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষনা করেন। ঘটনার পর থেকে ঘাতক রডের দোকান মালিক জাকির হোসেন পলাতক রয়েছে।

নিহত লেগুনা চালকের ভাই সোহেল বলেন, তার ভাই প্রতিদিন রাতে মহাসড়কের পাশে গাড়ী পার্কিং করে বাড়িতে চলে যায়। তবে ওই দিন জায়গার সংকট থাকায় স্টীল দোকানের সামনে গাড়ী রাখলেও ভোরের দিকে সেখান থেকে গাড়ী সড়িয়ে নিয়ে চলে গেছেন। এই তুচ্ছ ঘটনায় তার ভাইকে পিটিয়ে হত্যার বিচার দাবী করেন তিনি।

এ ব্যাপারে আশুলিয়া থানার ওসি জাবেদ মাসুদ ঘটনাটি তদন্ত করে সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মর্গে প্রেরন করা হয়েছে। এ ঘটনায় একটি থানায় মামলা দায়ের করা হবে ।

 

আলোকিত প্রতিদিন/১৮ সেপ্টেম্বর/আরএ

ফেসবুক থেকে মন্তব্য করুন