গাজীপুরে পোশাক শ্রমিকদের উপর নির্যাতনের অভিযোগ

শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি: গাজীপুরের শ্রীপুরে পশ্চিম ভাংনাহাটি এলাকায় সিআরসি টেক্সটাইল মিলস্ কারখানা কর্তৃপক্ষের অনিয়ম ও দুর্ণীতির প্রতিবাদ করায় শ্রমিকদের ওপর নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। কারখানার শ্রমিকরা সাংবাদিকদের কাছে এ অভিযোগ করেন।

মোমতাজ উদ্দিন, মুন্নী, ফয়সাল ও সাবিনা আক্তারসহ কয়েকজন নির্যাতিত শ্রমিক জানান, সাপ্তাহিক এবং সরকারি ছুটিতেও তাদের কোন প্রকার ছুটি না দিয়ে কাজ করানো হয়। সঠিক সময়ে বেতন পান না তারা। উল্টো কয়েক মাসের বেতন জমে গেলে কিছু টাকা দিয়ে বাকিটা পরে নেওয়ার কথা বলে মাসের পর মাস ঘুরানো হয়। আবার বিভিন্ন অজুহাতে মূল বেতন থেকে টাকা কর্তন করা হয়। কোন শ্রমিক কাজ করতে অনিচ্ছা প্রকাশ করলে তাকে নানাভাবে নির্যাতন করে।

শ্রমিক মোমতাজ উদ্দিনের বোন তাহমিনা আক্তার ইভা জানান, কারখানা ভেতর মোমতাজকে আটক করে নির্যাতন করা হয়। খবর পেয়ে শনিবার সকাল থেকেই কারখানার প্রধান ফটকে অপেক্ষা করলেও ভাইয়ের সাথে আমাকে দেখা করতে দেয়নি। মোমতাজের মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করলেও কল রিসিভ করা হয়। পরে জানতে পারি, মুঠোফোন কেড়ে নেওয়া হয়েছিল।

কারখানার আশেপাশের স্থানীয়দের সাথে কথা হলে তারা জানান, এখানে কর্মরত অধিকাংশ শ্রমিকদের বয়স ১৮ বছরের নিচে। বেতন নিয়ে প্রায় সময়ই তাদের সাথে ঝামেলা হয়। অনেক শ্রমিকদের ওপর নির্যাতনের ঘটনা ঘটে।

কারখানার মানব সম্পদ ও প্রশান বিভাগের উর্ধ্বতন ব্যকস্থাপক আরিফুল ইসলাম জানান, শ্রমিকদের অভিযোগগুলো সঠিক নয়। একসাথে ১০/১২জন শ্রমিক ছুটির আবেদন করলে পর্যায়ক্রমিকভাবে তাদেরকে ছুটি দেওয়া হয়। সরকারি বিভিন্ন দিবসে স্বেচ্ছায় কাজ করতে ইচ্ছুক শ্রমকিদেরকে অতিরিক্ত মুজুরী দিয়ে কাজ করানো হয়। শ্রমিকদের আবেদনের প্রেক্ষিতে তাদের ভাই-বোনদেরকে শারীরিক গঠনে ১৮ বছরের ওপরে হওয়ায় চাকুরী দিয়ে সহযোগিতা করা হয়।

গাজীপুর শিল্প পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক মোহাম্মদ ইউসুফ জানান, শ্রমিকদের উপর নির্যাতনের কথা শুনেছি। তারা মৌখিকভাবে জানিয়েছে। এব্যাপারে লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আলোকিত প্রতিদিন/১৬সেপ্টেম্বর/আরএইচ

ফেসবুক থেকে মন্তব্য করুন