অনুষ্ঠিত হলো অন্যধারা সাহিত্য সংসদের ১৮১তম আড্ডা

নিজস্ব প্রতিবেদক: নবীন ও প্রবীন কবি সাহিত্যিকদের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত হলো অন্যধারা সাহিত্য সংসদের ১৮১তম সাহিত্য আড্ডা। শুক্রবার (১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে রাজধানীর ফার্মগেটে সংগঠনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে কবিদের স্বরচিত কবিতা, ছন্দ ও গানে মনোরম এক পরিবেশ সৃষ্টি হয়। নজরুল ইনসটিটিউটের নির্বাহী পরিচালক কবি মানিক মোহাম্মদ রাজ্জাক আড্ডার মধ্যমণি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। তাকে ঘিরে আড্ডায় উপস্থিত ছিলেন দেশের স্বনামধন্য কবি, সাহিত্যিক, ছড়াকারগণ ও সাংবাদিকগণ।

‘আমার এ দুটি চোখ পাথর তো নয়, তবু কেন ক্ষয়ে ক্ষয়ে যায়’ এর মতো অসংখ্য বিখ্যাত গানের রচয়িতা এবং একুশে পদক প্রাপ্ত কবি জাহিদুল হক আড্ডায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। কবি ফারুক মাহমুদের সভাপতিত্বে আড্ডায় প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কবি রেজাউদ্দিন স্টালিন। পঠিত কবিতার উপরে জ্ঞানগর্ভপূর্ণ আলোচনা করেন কবি সুশান্ত হালদার।

অন্যধারা সাহিত্য সংসদের নির্বাহী চেয়ারম্যান কবি ক্যামেলিয়া আহমেদের সঞ্চালনায় আড্ডার মধ্যমণি কবি মানিক মোহাম্মদ রাজ্জাক স্বরচিত কবিতা পাঠের পাশাপাশি বেশ কিছু গান পরিবেশন করেন। এতে উপস্থিত কবিকূলের মধ্যে নতুন এক আমেজ সৃষ্টি হয়। আনন্দে মুখরিত হয়ে ওঠে আড্ডার পরিবেশ। পরে স্বরচিত কবিতা পাঠ করেন কবি আশরাফ মির্জা, কবি আলী মুহাম্মদ লিয়াকত, কবি আফিয়া রুবি, কবি হামিদা পারভিন শম্পা, কবি হাসান কামরুল, কবি রফিক হাসান, কবি সমা খান, কবি শহীদ ইমাম, কবি আব্দুল আজিজ চৌধুরী, কবি মতিউর রহমান মানু, কবি নাসিমা আক্তার নিঝুম, কবি জাকারিয়া নূরী, সাংবাদিক আলমগীর হোসেন, কবি রাকিব উদ্দিন, কবি শারমিন সুলতানা, কবি হুমায়ুন কবীর সাগর, কবি মাহমুদা আক্তার, কবি মোজাফফার হোসেন, কবি এস এম পারভেজ, কবি কুহেলী জামান, কবি সনাতন মিত্র এবং কবি সৈয়দ আহসান কবীর। পরে উপস্থিত অতিথিরা জ্ঞানগর্ব বক্তব্য রাখেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে কবি জাহিদুল হক বলেন, ‘কবিতা প্রাণের কথা বলে, দেশের কথা বলে, সমসাময়িক বিষয়ের কথা বলে। কবিতা সুরের কথা বলে। কবিতার পরিধি ব্যাপক। এই ব্যাপকতায় কবিদের চিন্তাশক্তি ঘুরে বেড়ায়।’ তিনি আরও বলেন, ‘কবিদেরকে এজন্য অনেক সচেতন থাকতে হয়।’

প্রধান আলোচকের বক্তব্যে কবি রেজা উদ্দিন স্টালিন আড্ডার মধ্যমণির কবিতা প্রসঙ্গে বিশদ আলোচনা করেন। একপর্যায়ে তিনি বলেন, ‘মানিক মোহাম্মদ রাজ্জাক তিনি শুধু কবিই নন নন্দনতত্ত্ব ও কবিতার শিল্পগুণ সম্পর্কে ব্যাপক জানাশোনা মানবিক প্রেমে উজ্জীবিত জীবনঘনিষ্ঠ কবি’। তিনি সকল কবিদের উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করেন। পরে অনুষ্ঠানের সভাপতি সাহিত্য আড্ডার সমাপ্ত ঘোষণা করতে গিয়ে বলেন, ‘কবিতার আড্ডা হলো পুষ্প পল্লবের সৌরভের বাগান। তাই বার বার ঘুরে ফিরে এবাগানেই আমাদের বিচরণ’।

আলোকিত প্রতিদিন/১৬ সেপ্টেম্বর/আরএইচ

ফেসবুক থেকে মন্তব্য করুন