লঞ্চে আগুন, অল্পের জন্য রক্ষা পেলো ৪০০ যাত্রী

চাঁদপুর লঞ্চঘাটে ঢাকাগামী যাত্রীবাহী একটি লঞ্চে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় লঞ্চটি পুরো বিকল হয়ে গেলেও হতাহত হওয়ার কোনো ঘটনা ঘটেনি। আজ বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে নয়টায় চাঁদপুর লঞ্চঘাটে ঢাকাগামী যাত্রীবাহী এমভি রফরফ লঞ্চের ইঞ্জিনে আগুন ধরে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার সময় লঞ্চটিতে প্রায় ৪০০ যাত্রী ছিলেন।

আগুনে লঞ্চটি পুরো বিকল হয়ে পড়ে। ছবি: আলম পলাশ

প্রত্যক্ষদর্শী লক্ষ্মীপুর এলাকার  যাত্রী শাহ আলম জানান, সকাল সাড়ে নয়টায় ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেয় লঞ্চটি। ঘাট পার হওয়ার সময় হঠাৎ করে ইঞ্জিনে আগুন ধরে যায়।

চালক দ্রুত লঞ্চটি ঘাটে ভেড়ান। তখন লঞ্চে থাকা যাত্রীরাও চিৎকার করতে করতে দ্রুত লঞ্চ থেকে নামতে শুরু করেন। তবে হতাহত হওয়ার কোনো ঘটনা ঘটেনি।

লঞ্চের মাস্টার রওশন আলী জানান, লঞ্চটি ছাড়ার জন্য ঘাট থেকে পেছনে যাওয়ার সময় বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিটের কারণে ইঞ্জিনকক্ষে আগুন ধরে যায়। মুহূর্তে লঞ্চের ইঞ্জিনকক্ষ ও দ্বিতীয় তলায় আগুন ছড়িয়ে পড়ে। লঞ্চটি দ্রুত ঘাটে ফেরানো হয়। খবর পেয়ে চাঁদপুর নৌ-ফায়ার সার্ভিসের দুটি দল কোস্টগার্ড ও নৌ পুলিশ প্রায় প্রায় আধা ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এ সময় যাত্রীরাও নিরাপদ আশ্রয়ে চলে আসে।

আগুন লাগার খবর পেয়ে চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক মাজেদুর রহমান খান, পুলিশ সুপার জিহাদুল কবিরসহ অন্য সরকারি পদস্থ কর্মকর্তারা চাঁদপুর লঞ্চঘাটে ছুটে যান। জেলা প্রশাসক মাজেদুর রহমান খান বলেন, আগুন লাগার কারণ তদন্ত করা হচ্ছে।

চাঁদপুর ফায়ার সার্ভিস সিনিয়র স্টেশন অফিসার মোবারক হোসেন বলেন, আগুন লাগার কারণ ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ এখনো নিশ্চিতভাবে বলা যাচ্ছে না।আগুনে লঞ্চটি পুরো বিকল হয়ে পড়ে। আগুনে লঞ্চটি পুরো বিকল হয়ে পড়ে। ছবি: আলম পলাশ চাঁদপুর নৌ পুলিশ ফাঁড়ির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল করিম জানান, লঞ্চটি ঘাটের কাছে থাকায় বড় ধরনের ক্ষতি থেকে সবাই রক্ষা পেয়েছে। এ ব্যাপারে লঞ্চের মালিক আবদুর বারীর সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও কথা বলা সম্ভব হয়নি।

আলোকিত প্রতিদিন/১৩ সেপ্টেম্বর/আরএ

ফেসবুক থেকে মন্তব্য করুন