দেশ নিম্নমধ্য আয়ের দেশে উত্তরণ উপলক্ষে নড়াইলে আনন্দ শোভাযাত্রা

নড়াইল প্রতিনিধি: নিম্ন আয়ের দেশ থেকে নিম্নমধ্য আয়ের দেশে উত্তরণে বাংলাদেশের ঐতিহাসিক সাফল্য উদযাপন উপলক্ষে জেলা প্রশানের উদ্যোগে নড়াইলে একটি আনন্দ শোভাযাত্রা হয়েছে। সেই সাথে নড়াইল জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে নড়াইল জেলা তথ্য অফিসের আয়োজনে স্বল্পোন্নত দেশের স্ট্যাটাস হতে বাংলাদেশের উত্তোরণের যোগ্যতা অর্জনের ঐতিহাসিক সাফল্য উদযাপন উপলক্ষে একটি প্রেস ব্রিফিং অনুষ্ঠিত হয়।

আজ মঙ্গলবার (২০ মার্চ) সকালে এ আনন্দ শোভাযাত্রা ও প্রেস ব্রিফিং এর কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন নড়াইলের জেলা প্রশাসক মো: এমদাদুল হক চৌধুরী, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের কর্মকর্তাবৃন্দসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। গণমাধ্যমকর্মীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, নড়াইল জেলা অনলাইন মিডিয়া ক্লাবের সভাপতি উজ্জ্বল রায়, সাধারণ সম্পাদক মো: হিমেল মোল্যা, সাংগঠনিক সম্পাদক আক্তার হোসেন মোল্যা (বাগডাঙ্গা), দৈনিক ভোরের বাংলা পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদক মো: জাহাঙ্গীর হোসেন শেখ, একই পত্রিকার বার্তা সম্পাদক মো: হাবিবুর রহমান শাওন, বিজয় টেলিভিশনের নড়াইল জেলা প্রতিনিধি জিয়াউর রহমান জামী, চ্যানেল নাইন ও বাংলা নিউজ টুয়েন্টি ফোরের নড়াইল জেলা প্রতিনিধি ইমরান হোসেন, প্রতিদিনের কণ্ঠের বুলু দাসসহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

জেলা প্রশাসক মো: এমদাদুল হক চৌধুরী তাঁর বক্তব্যে বলেন, স্বল্পোন্নত দেশের ধারণাটি ১৯৬০ এর দশকে প্রথম প্রবর্তিত হলেও জাতিসংঘ প্রথম স্বল্পোন্নত দেশগুলোকে পৃথকভাবে শ্রেণিবদ্ধ করে ১৯৭১ সালে। মাথাপিছু আয়, মানব সম্পদ ও অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতার বিভিন্ন সূচকে জাতিসংঘ নির্ধারিত সীমার মধ্যে থাকা দেশগুলো স্বল্পোন্নত দেশ হিসেবে চিহ্নিত। কিন্তু বর্তমানে আমরা নিম্ন আয়ের দেশ থেকে নিম্নমধ্য আয়ের দেশে উত্তরণে বাংলাদেশের ঐতিহাসিক সাফল্য অর্জন করতে সক্ষম হয়েছি।

পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম তাঁর বক্তব্যে বলেন, বাংলাদেশ বর্তমানে অনেক উন্নত। যে দিকগুলি থেকে বাংলাদেশ আগে পিছিয়ে ছিল সেদিকগুলি এখন বিলুপ্তপ্রায়। ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ কাঙ্খিত উন্নয়ন অর্জন করতে সক্ষম হবে বলেও তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

আলোকিত প্রতিদিন/২০ মার্চ/আরএইচ

ফেসবুক থেকে মন্তব্য করুন