ভয় কাটুক, বইয়ে । মু. তৌহিদুল ইসলাম

‘বন্ধুত্ব’ অসাধারণ একটা ব্যাপার! শব্দটির মধ্যে লুকিয়ে আছে স্বর্গীয় সুখ আবার আছে নরকের যন্ত্রণাও! তবে এটা নির্ভর করে বন্ধু কেমন তার উপর। কারণ অনেক সময় একজন বন্ধু পরিবারের সদস্যদের চাইতেও আপন হয়, সঙ্গ দেয়, সাহস দেয়, দিকনির্দেশনা দেয়, সাত্ত¡না দেয়, সহযোগিতা করে। আর খারাপ বন্ধু একইভাবে বিপরীত কাজগুলো করে যেমন: শত্রু হয়, তাড়িয়ে দেয়, ভয় দেখায়, বিপদগামি করে, অসহিংস হয়ে ওঠে, অসযোগিতা করে। আমাদের জীবনে বইয়ের ব্যাপারটা কি এমন না? যেমন: একটা ভালো বই যেমন ভালো বন্ধু হতে পারে আবার একটা খারাপ বই খারাপ বন্ধুও হতে পারে। হেনরি ওয়ার্ড বলেছেন, “বই ভালো বন্ধু। এর সঙ্গে কথা বলা যায়। বই সব উপদেশই দেয় কিন্তু কোন কিছুই করতে বাধ্য করে না।” একজন ভালো মানুষ হওয়ার শুরুর পথ হলো উপদেশ নেয়া বা জানা। না জানলে মানা হয় না। বই মানুষকে জানতে সহযোগিতা করে, সাহসী করে, উদ্বুদ্ধ করে, জ্ঞানী করে, চিন্তার জগতকে বৃহৎ করে, পরিশীলিত করে, ভয় কাটায়। এই ভয় হলো না জানার ভয়, সিদ্ধান্তহীনতার ভয়, চিন্তার পরিশুদ্ধতার ভয়, নিজেকে প্রকাশ করার ভয়, অনেককে সহযোগিতা করার ভয়, নিজের চিন্তা বিনিময়ের ভয় এবং আরো অনেক ভয়। এই ভয় কাটানোর দরকার আছে। কারণ এই ভয় কারো মনে বাসা বাধলে তার জীবনকে বিপর্যস্ত করে দিতে পারে। হতাশার সাগরে ডুবিয়ে বিপদগামীও করতে পারে। তাই জীবনকে আনন্দময় করতে জানার সাগরে অবগাহন করতে ভালো বন্ধু মানে ভালো বইয়ের সঙ্গ নেয়া দরকার।

এখন চলছে বই মেলা। চলবে মাসব্যাপী। যদিও বইমেলা থাকুক আর না থাকুক আমাদের সারা বছরব্যাপী বই পড়া ও সংগ্রহ করা দরকার। তারপরও এই মাসটা আমাদের বিশেষভাবে বই পড়ায় আগ্রহী করে তোলে। অনেকে তাদের সন্তান ও ছোটো বাচ্চাদের নিয়ে বই মেলায় যান। এটি সত্যিই অসাধারণ একটি দৃশ্য! আমাদের শিশুদের বা সন্তানদের বইয়ের সাথে বিশেষ করে ভালো বইয়ের সাথে পরিচিত করানো দরকার। সাধারণত বাচ্চারা কার্টুন কমিকস, ভ‚ত-প্রেত, ডাইনি-বুড়ির গল্প ইত্যাদি বই পড়তে পছন্দ করে। এসব তাদের স্বভাবজাত বিষয়। দেখা যায় বাচ্চারা বইয়ের স্টলে গেলেই এসব বই কিনে দিতে বায়না ধরে। তাই তাদের এসব বই দিলেও পাশাপাশি মনিষীদের জীবনী, ধর্মীয় বই, শিক্ষামূলক গল্প, কার্টুন ইত্যাদি বইও কিনে দেয়া দরকার। তাহলে আমাদের সন্তানরাও ভালো বন্ধুর সংস্পর্শ পাবে। তাদের মনটা আলোকিত হবে, চিন্তার জগত সুন্দর ও ভবিষ্যৎ সমৃদ্ধ হবে। পাশাপাশি কাটবে ভয়। অজানার ভয়, কালোর ভয়।

(লেখক : শিশু সংগঠক  ও  কাউন্সিলর, বাংলাদেশ শিশুকল্যাণ পরিষদ, ঢাকা)

আলোকিত প্রতিদিন/ ২০ ফেব্রুয়ারি/আরএইচ

ফেসবুক থেকে মন্তব্য করুন