আলোকিত প্রতিদিনের ইতিবৃত্ত

আর কেউ না জানুক ‘অন্যধারা’ পরিবারের গর্বিত উত্তরাধিকারীরা কিন্তু জানেন, ‘সাপ্তাহিক অন্যধারা’র ঔরশেই জন্ম দৈনিক ‘আলোকিত প্রতিদিন’। অন্যধারা’র ১৮ বছরের গৌরবোজ্জ্বল পথ চলার মধ্য দিয়ে যে খেয়ালি উত্তেজনা সেই আবেগাকুল হৃদয়ের প্রণয়ে আজ বসতে যাচ্ছে প্রত্যহ প্রাণের মেলা।

রত্নগর্ভা মায়ের পেটে সন্তান ধারনের যে প্রসব বেদনা অতপরঃ যে অহমবোধের সার্থকতা সেই বাস্তবতা বিশ্লেষনের অনেক অংশেই সাদৃশ্যপূর্ণ আজকের বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনের সাহসী জাতীয় দৈনিক ‘আলোকিত প্রতিদিন’। অন্যধারা’র গর্ভ হতে ভূমিষ্টের কান্না বিজড়িত আনন্দের যে চিৎকার সেটি আমিই সর্ব প্রথম শুনেছি। মানুষ না যতবড় তার চেয়ে শত শত গুণ বড় তার ভেতরে পুষে রাখা স্বপ্ন। স্বপ্নীল মায়ার বাঁধনে পৃথিবীও অহর্নিশ ঘুরছে নিজস্ব কক্ষপথে। আমরাও না হয় বাস্তবতার দেয়াল টপকাতে এক ঝাঁক নবীন-প্রবীনের সংঘবদ্ধ প্রচেষ্টায় লক্ষ লক্ষ কোটি কোটি প্রাণের স্পন্দনে স্পন্দিত হবার স্বপ্নের নোঙর ফেলবো ‘আলোকিত প্রতিদিন’ -এর বুকের জমিনে।

স্বপ্ন না হয় স্বপ্নের বসত ভিঁটায় আয়েস করে ঘুমাক। আমরা না হয় ইলেকট্রনিক মিডিয়ার বেড়াজাল টপকিয়ে প্রিন্ট মিডিয়ার রাজত্বে জাগতিক মনোবল আর সত্য আশ্রিত অনুসন্ধানি প্রতিবেদন নিয়ে হাজির হই পাঠক মহলে।

এ মুহূর্তে একটি জাতীয় দৈনিক পত্রিকাকে পাঠক নন্দিত করতে কিংবা বিশ্বাসযোগ্য সংবাদের নির্ভরযোগ্য আশ্রয়স্থল বানানোটা একটু কঠিন কাজ মনে হলেও একেবারে অসাধ্য নয় বলে আমি বিশ্বাস স্থাপন করতে চাই। তবে দৈনিক পত্রিকা প্রকাশনার ক্ষেত্রে একটি টিমওয়ার্কের প্রয়োজন। এখানে বিভাগওয়ারি কাজের পাশাপাশি জেলা প্রতিনিধি, নীতি-নির্ধারনী মহলসহ অনেকের উপর সম্পাদককে নির্ভর করতে হয়, সেই অর্থে একটি শক্তিশালী প্রজ্ঞাবান, বিচক্ষণ, দক্ষ, মেধাবী টিম গঠন করতে পারলে সাফল্য সুনিশ্চিত, সেই প্রত্যাশা আমার আশার প্রজ্জ্বলিত শিখা।

আমি আশাবাদী মানুষ, যারা ব্যর্থতার কফিন ছিন্ন-ভিন্ন করে আলোকবর্তিকা হাতে দেশ-জাতিকে বিশ্ব দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড় করানোর অভিপ্রায়ে সদা ব্যকুল তাদের প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানাচ্ছি। আসুন না, সবাই মিলে বাঙালি জাতির হাজার বছরের স্বপ্ন স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্বের ইঞ্চি ইঞ্চি মাটিকে সাধ্য মতো আলোকিত করি। আমাদের ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্ঠায় আলোকিত হোক দরিদ্র মায়ের অন্ধ সন্তান আর বন্ধাত্ব মাতৃজঠরে জন্ম নিক অহংকারের ভ্রণ।
আলোকিত হোক সমাজ, আলোকিত হোক মানুষ, আলোকিত হোক রাষ্ট্র, আলোকিত হোক আগামীর বিশ্ব আর সেই আলোর দ্যুতিতে আলোকিত হই আমরাও।

-সৈয়দ রনো
(সম্পাদক, কবি, লেখক ও গবেষক)

ফেসবুক থেকে মন্তব্য করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *