যানজটে সোনারগাঁয়ের মোগরাপাড়া চৌরাস্তা ফুটপাত দখল করে সিএনজি স্ট্যান্ড ও রমরমা বানিজ্য, ভোগান্তি পথচারীদের

এরশাদ হুসাইন অন্য, সোনারগাঁ: নারায়নগঞ্জের সোনারগাঁয়ে ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কের মোগরাপাড়া চৌরাস্তা এলাকার ব্যস্ততম সড়ক ও ফুটপাত দখল করে প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় অবৈধ ভাবে গড়ে উঠেছে দোকানপাট ও সিএনজি-স্ট্যান্ড। যার ফলে যানজটের কবলে পড়ে প্রতিদিনই ভোগান্তির শিকার হচ্ছে স্কুল কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, রোগী, শিশু ও নারীসহ এলাকাবাসী, চালক ও যাত্রিরা। এলাকাবাসীর অভিযোগ নির্দিষ্ট সিএনজি স্ট্যান্ড না থাকায় সড়কে সিএনজি ও অটোরিকশা রাখা। ফুটপাত দখল করে ছোট ছোট দোকানপাট গড়ে উঠা এবং যত্রতত্র গাড়ি পার্কিং ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের পণ্য ওঠা-নামার জন্য রাস্তা দখল করে ট্রাক, পিকআপ ভ্যান রাখার কারণে সৃষ্টি হচ্ছে অসহনীয় দীর্ঘ যানজটের। যত্রতত্র সিএনজি ও অটোরিকশা রাস্তায় রাখার ফলে চলতে গিয়ে চরম বিড়ম্বনায় পড়েন পথচারীরা আর ফুটপাত দখলমুক্ত রাখতে আইনের কঠোর প্রয়োগ জরুরি বলে মত দিয়েছেন স্থানীয়রা। মহাসড়কের পাশে বছরের পর বছর এ অবস্থা চললেও হাইওয়ে পুলিশ স্থায়ী ভাবে ফুটপাত দখলমুক্ত করার কোনো উদ্যোগ নিচ্ছে না বলে অভিযোগ রয়েছে এলাকাবাসীর। অভিযোগ রয়েছে কিছুদিন পরপর লোক দেখানো উচ্ছেদ অভিযান চললেও স্থানীয় প্রভাবশালীদের ছত্রছায় ফুটপাত দখল করে দৈনিক ও মাশোহারা ভিত্তিতে আবারও গড়ে তুলছেন বিভিন্ন পণ্য সামগ্রীর ছোট ছোট দোকান এবং সড়কে সিএনজি স্ট্যান্ড হওয়ায় ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে পথচারীদের।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, উপজেলা পরিষদ, উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্স, ভূমি অফিস, সাবরেজিস্টার অফিস, সোনারগাঁ থানা, একাধিক বেসরকারী ক্লিনিক ও হাসপাতাল, ব্যাংক ও বিমা অফিস, মাদ্রাসা, স্কুল এন্ড কলেজ, কোচিং সেন্টার, কিন্ডার গার্ডেন, পৌরসভাসহ ৪ ইউনিয়ন এবং মেঘনা হয়ে ইঞ্জিন চালিত ট্রলার যুগে বৈদ্যের বাজার ঘাটে আসা পাশর্^বর্তী উপজেলাসহ প্রতিদিন প্রায় ১৫ থেকে ২০ হাজার মানুষের যাতায়াতের এই গুরুত্বপূর্ণ প্রদান সড়ক মোগরাপাড়া চৌরাস্তা। এই গুরুত্বপূর্ণ সড়কটি পর্যাপ্ত পরিমাপে বড় না হওয়া, যত্রতত্র অটোরিকশা ও সিএনজি রাখা এবং রাস্তার মাঝে ট্রাক থামিয়ে পণ্য ওঠা-নামার কাজ করার ফলে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে এর ফলে ১০ মিনিটের পথ পারি দিতে হচ্ছে ৩০ মিনিটে। দীর্ঘ যানজট লেগে থাকলেও স্থানীয় প্রশাসনের নেই কোন নজরধারী।
কাঁচপুর হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোজাফফর হোসেন বলেন, এর আগেও আমরা অভিযান চালিয়ে ফুটপাত দখল মুক্ত করেছি আবারও দখল হয়ে গেছে। বিভিন্ন কারনে ফুটপাত দখল মুক্ত করা সম্ভব হচ্ছেনা। এ বিষয়টা আজ সোমবার আইন শৃঙ্খলা মিটিংয়ে গুরুত্ব সহকারে তুলে ধরবো।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রকিবুর রহমান খাঁন বলেন, ফুটপাত অবশ্যই দখল মুক্ত করা হবে এবং সিএনজি স্ট্যান্ড অন্যত্র সড়িয়ে নিয়ে কিভাবে মোগরাপাড়া চৌরাস্তা যানজট মুক্ত করা যায় আজকে আইশৃঙ্খলা মিটিংয়ে সবার সাথে এ বিষয় নিয়ে আলোচনা করবো।

 

 

 

 

আলোকিত প্রতিদিন/৮ ডিসেম্বর/আসাদ

এই সংবাদ ৩০ বার পঠিত।
ফেসবুক থেকে মন্তব্য করুন
%d bloggers like this: