ধ্যানমগ্ন কবি——সৈয়দ রনো

ধ্যানমগ্ন কবি
সৈয়দ রনো

শোকে দুখে পাথর এখন
ধ্যানমগ্ন বিমর্ষ কবি
ভাবছেন শুধু ভাবছেন কবিতার চরণ
ছত্রে ছত্রে সাঁজাতে চান বাংলার চিত্র
কানের কাছে ফিস ফিস করে সা’দ(আ:) বললেন
অনুশোচণার চিতায় আগের মতো পোড়ে না মানুষ
মানব মুক্তির বাণী
চিন্তার আবর্তে ঘুরতে ঘুরতে বড্ড ক্লান্ত

দেখতেই পাচ্ছেন নতুন করে যুক্ত হয়েছে গাড়ীতে ধর্ষণ
বিচার বর্হিভূত হত্যাকাণ্ড
বজ্রপাতে মানুষের অপমৃত্যুর ভয়াল তাণ্ডব
সবাইকে ভাবিয়ে তুলছে এসব
কিছু একটা লিখুন কবি কিছু একটা লিখুন জাতির কল্যাণে

খানিকটা চিড়ধরা মনোবল নিয়ে
কবি ক্ষীণকণ্ঠে বললেন
প্রতিবাদের এই কলম লিখতে লিখতে
আয়ুষ্কাল শেষ
কলমের ডগা ফেঁটে এখন আর বেরোয়না অগ্নি স্ফুলিঙ্গ
এখন শুধু ভাবছি কোথায় পালিয়ে গেলে
রাত বিরাতে আর শুনতে হবে না
এ শহরের বোবা কান্না
মানুষের হাহাকার

জীবদ্দশায় যিশুর করুণ পরিণতি দেখে
যেমন লক্ষ কোটি জনতা এখনো কাঁদে
ঠিক তেমনি কবির পরিণতিতে কাঁদুক মানুষ
তবু পরিশীলিত হোক বাংলার ভাগ্যাকাশ
মুক্তি চাই
সকল পাঁপাচার পংঙ্কিলতা হতে মুক্তি চাই
শুদ্ধ বৃষ্টিস্নানে
শীতল হোক বিবেক বোধের ব্যথিত হৃদয়
বাংলার ভাগ্যাকাশ।

এই সংবাদ ৫৩৮ বার পঠিত।
ফেসবুক থেকে মন্তব্য করুন
%d bloggers like this: